আবারো চিকিৎসা সেবায় মানবতার হাত বাড়িয়ে দিলেন বদরুল হসান মিলকী। একের পর এক হতদরিদ্রদের চিকিৎসা সেবা দানের মধ্য দিয়ে  সব মহলের প্রশংসা পাচ্ছেন  এই তরুন সফল ব্যবসায়ী।

টেকনাফ সদর ইউনিয়নের আওতাধীন লেংগুরবিল এলাকার মাঠ পাড়ার বাসিন্দা মোঃ আক্তার। বায়ুপথের টিউমারটা নিয়ে অসহ্য কষ্ট আর যন্ত্রণায় দিনাতিপাত করছিলেন এই রোগী। সু-চিকিৎসার অভাবে দীর্ঘ দশ বছর পেরিয়ে গেলেও কেউ পাশে দাঁড়ায়নি। অবশেষে বিশিষ্ট সমাজ সেবক, ব্যবসায়ী, দানবীর বদরুল হাসান মিলকীর কাছে রোগীর পরিবার শরণাপন্ন হলে এই রোগীর সুচিকিৎসার ভার কাঁদে নেয় এই তরুন ব্যবসায়ী।

অপারেশন শেষে বদরুল হাসান মিলকীর সাথে টিউমার রোগী আক্তার।

৫ এপ্রিল সোমবার সকাল ৯ টায় বদরুল হাসান মিলকীর সহযোগিতায় কক্সবাজার সদর মেডিকেল হাসপাতালের সার্জন ডাঃ রিদুওয়ানের নেতৃত্ব একটি মেডিকেল টিম হতদরিদ্র মোঃ আক্তারের টিউমার সফলভাবে অপারেশন সম্পন্ন করেন। এতে রোগীর পরিবার ও এলাকার সর্বত্রে খুশির জোয়ার নেমে এসেছে।

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বদরুল হাসান মিলকি বলেন, প্রতিটি মানুষ সমাজে সুস্থভাবে বেঁচে থাকার অধিকার রাখে। সমাজের বিত্তবানগণের সুদৃষ্টি থাকলে এক এক জন এক একজনের চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ করলে সমাজে জটিল রোগীর সংখ্যা দিন দিন কমে যাবে। হতদরিদ্র এই টিউমার রোগী আকতারের চিকিৎসার দায়িত্বভার নিতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি এবং মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। কারণ আল্লাহ আমাকে এরকম একটি মহৎ কাজ করার তৌফিক দান করেছেন।

বিশিষ্ট এই ব্যবসায়ী টিউমার আক্রান্ত রোগীর জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন। ‘মানুষ মানুষের জন্য’ স্লোগান কে অন্তরে ধারণ করে মানবতার কাজ করার জন্য সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেন।

উল্লেখ্য, বদরুল হাসান মিলকী গেল বছর ৯ মার্চে টেকনাফের আলোচিত নুর হোসেন পাগলার বিশাল আকৃতির টিউমারসহ আরও একজনের সুচিকিৎসার দায়িত্বভার নিয়েছিলেন। পুরো টেকনাফে বদরুল হাসান মিলকী এখন মানবতার সেবক হিসেবে পরিচিত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •