সিবিএন ডেস্ক:
করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় দেশের আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ২৫ মে বার কাউন্সিলের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

শনিবার (৩ এপ্রিল) বার কাউন্সিলের সচিব রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানসহ কমিটির সংশ্লিষ্টদের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে এ নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। বার কাউন্সিলের বর্তমান কমিটির মেয়াদ আগামী জুনে শেষ হবে। তার আগেই এ নির্বাচন সম্পন্ন করার কথা ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) দেশের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল ও বার কাউন্সিল চেয়ারম্যান আবু মোহাম্মদ (এ এম) আমিন উদ্দিনের স্বাক্ষরের পরে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছিল।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিল ২৮ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত, মনোনয়নপত্র বাছাই ১১ এপ্রিল, প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ছিল ১৫ এপ্রিল।

বার কাউন্সিলের এই নির্বাচনে ভোট দেওয়ার মাধ্যমে সারাদেশের প্রায় ৫০ হাজার আইনজীবী তিন বছরের জন্য তাদের (আইনজীবী) প্রতিনিধি নির্বাচন করে থাকেন।

বার কাউন্সিলের নির্বাচনে মোট ১৪ জন সদস্য তিন বছরের জন্য নির্বাচিত হয়ে থাকেন। এর মধ্যে সারাদেশে সনদপ্রাপ্ত আইনজীবীদের ভোটে সাধারণ আসনে সাতজন এবং দেশের সাতটি অঞ্চলের স্থানীয় আইনজীবী সমিতির সদস্যদের মধ্য থেকে একজন করে আরও সাতজন নির্বাচিত হয়ে থাকেন। অ্যাটর্নি জেনারেল পদাধিকারবলে বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •