সিবিএন ডেস্ক:
ফ্রান্সে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে পাঁচ হাজার ২৫৪ জন আইসিইউতে আছেন।

রয়টার্স জানায়, গত কয়েক মাসের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসিইউতে ভর্তির সংখ্যা এটাই সর্বোচ্চ। দেশটিতে সংক্রমণের সঙ্গে তাল মিলিয়ে যথেষ্ট আইসিইউ বেড ও জরুরি সেবা না থাকায় প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ তৃতীয়বারের মতো লকডাউন ঘোষণা করেছেন।

এর আগে কারফিউ ও অঞ্চলভিত্তিক লকডাউনের মাধ্যমে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হলেও তা ব্যর্থ হয়েছে।

আগামী সপ্তাহ থেকে ফ্রান্সে লকডাউন শুরু হতে যাচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। জরুরি নয় এরকম সব ধরনের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানও চার সপ্তাহের জন্য বন্ধ রাখা হবে।

প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ জানান, আইসিউ বেডের সংখ্যা সাত হাজার থেকে বাড়িয়ে দশ হাজার করা হবে।

সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ডাক্তাররা আশংকা করছেন যে, মহামারির তৃতীয় ঢেউয়ে আগামী দুই সপ্তাহে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। তাদের আশংকা, আইসিইউতে রোগীর সংখ্যা আরও বেড়ে যাবে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ফ্রান্সে এ সপ্তাহে নতুন করে ৪৬ হাজার ৬৭৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন, যা গত সপ্তাহের তুলনায় ৬ দশমিক ২ শতাংশ বেশি। এ পর্যন্ত ফ্রান্সে ৪৭ লাখ ৪০ হাজার মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। গত সপ্তাহে ৩৩২ জন মারা গেছেন। দেশটিতে করোনায় এ পর্যন্ত ৯৬ হাজার ২৮০ জন মারা গেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •