সিবিএন ডেস্ক:
ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) জাকাত তহবিলের অর্থ আত্মসাতের মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ বাতিল চেয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় সিনিয়র নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর হাইকোর্টে করা আবেদনের ওপর শুনানি দুই সপ্তাহের জন্য মূলতবি করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনে এ আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে সাঈদীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার এহসান এ সিদ্দিকী ও মুজাহিদুল ইসলাম শাহীন। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন বাপ্পী।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ইফার জাকাত তহবিলের এক কোটি ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১০ সালের ২৪ মে শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা করা হয়। মামলাটিতে তদন্ত শেষে সাঈদীসহ সাতজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। তবে মামলার আসামি সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন শাহজাহান মারা যাওয়ায় তাঁকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে বাকি ছয় আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয় গত ১১ জানুয়ারি। এ মামলায় আগামী ৭ এপ্রিল সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য রয়েছে।

দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ছাড়া অপর পাঁচ আসামি হলেন- ইফার সাবেক পরিচালক মোহাম্মদ লুৎফুল হক, মসজিদ কাউন্সিল ফর কমিউনিটি অ্যাডভান্সমেন্টের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, বন্ধুজন পরিষদের প্রধান সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ ইউনুস, ইসলামী সমাজ কল্যাণ কেন্দ্রের সাবেক সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মসজিদ কাউন্সিলের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল হক। আসামিদের মধ্যে আবুল কালাম আজাদ ও আব্দুল হক পলাতক। অপর তিন আসামি জামিনে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে এখন কারাবন্দি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •