প্রেস বিজ্ঞপ্তি
২৬ শে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দু’আ মাহফিল করেছে রামু লেখক ফোরাম। অস্থায়ী কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি, তরুণ লেখক হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, স্বভাব কবি আলহাজ্ব কাজী মোহাম্মদ আলী। প্রধান আলোচক ছিলেন, সংগঠনের উপদেষ্টা প্রাবন্ধিক, সমাজ ও রাজনীতি বিশ্লেষক আখতারুল আলম। বিশেষ আলোচক ছিলেন, সংগঠনের উপদেষ্টা, বিশিষ্ট আইনজীবী এড. হোসাইন আহমদ আনছারী।
সাধারণ সম্পাদক আহমদ ছৈয়দ ফরমানের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের উপদেষ্টা মাওলানা এম. আতাউর রহমান, অর্থ সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ দিদারুল আলম প্রমুখ। স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি করেন, সহযোগী সদস্য মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ হোসাইনী।
সভায় আলোচকবৃন্দ বলেন, পাকিস্তানী শাসকগোষ্ঠির চরম বৈষম্য ও লাঞ্ছনা-বঞ্চনার অবসান ঘটাতে ১৯৭১ সালের ২৬ শে মার্চ বাংলার বীর সন্তানেরা ঝাঁপিয়ে পড়েন মাতৃভূমির স্বাধীনতা সংগ্রামে। প্রিয় মাতৃভূমির স্বাধীনতার জন্য স্থাপন করতে হয়েছে আত্মদানের বিরল দৃষ্টান্ত, পেশ করতে হয়েছে ত্যাগের সর্বোচ্চ নজরানা। ফলশ্রুতিতে লাখো শহীদের তাজা রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে স্বাধীনতা, আমরা পেয়েছি লাল-সবুজের পতাকা। বিশ্ব মানচিত্রে আসন গড়ে নেয় বাংলাদেশ নামক একটি নতুন রাষ্ট্র। তাজা রক্তের বিনিময়ে পাওয়া আমাদের এ স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে ভিনদেশি আগ্রাসন ও অপসংস্কৃতির কবল থেকে মুক্ত করতে সবধরণের আধিপত্যবাদী চক্রান্ত রুখে দাঁড়াতে হবে।
আলোচকবৃন্দ বলেন, বৃটিশ বিরোধী আযাদী আন্দোলনের কারণে আমাদের দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের পথ সুগম হয়েছে। আর সেই আযাদী আন্দোলনসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে স্বচ্ছধারার ওলামায়েকেরামের গৌরবোজ্জ্বল অবদান রয়েছে। স্বাধীনতার মূল তাৎপর্য, চেতনা ও ইতিহাস নবপ্রজন্মকে জানাতে হবে।
সভায় স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর শহীদান ও মরহুম মুক্তিযোদ্ধাদের রুহের মাগফিরাত এবং দেশ ও জাতির শান্তি -সমৃদ্ধি কামনায় করে মহান আল্লাহর দরবারে বিশেষ মুনাজাত করা হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন, মাওলানা জসিম উদ্দিন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •