সিবিএন ডেস্ক:
হেফাজতের তাণ্ডবের পাঁচদিন পর চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানা ভবনে হামলা, ভূমি অফিসে ভাঙচুর, ডাকবাংলোয় আগুন, পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ছয়টি মামলা হয়েছে। একই অভিযোগে পটিয়াতেও আরেকটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে হাটহাজারী থানায় চারটি ও পটিয়ায় একটি মামলার বাদী পুলিশ। আর ভূমি অফিসের কর্মকর্তারা দায়ের করেন দুটি মামলা। তবে প্রায় দুই হাজারজনকে আসামি করা হলেও কারো নাম নেই এসব মামলায়। সাত মামলার সব আসামিই অজ্ঞাত।

জেলার এসপি এস এম রশিদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলাগুলো তদন্তের মাধ্যমে আসামিদের সনাক্ত করা হবে।

থানায় হামলার অভিযোগে করা মামলায় অজ্ঞাত ১ হাজার ৮০০ থেকে ২ হাজার জনকে করা হয়েছে। ভূমি অফিসের করা দুই মামলায় অজ্ঞাত ২০০ জন করে ৪০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এর প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদ্রাসাশিক্ষার্থীরা থানায় হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন। নিহতের জেরে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা হাটহাজারী থানা, ডাকবাংলো, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে হামলা চালান। তাঁরা হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি সড়কের ওপর দেয়াল তৈরি করে তিন অবরোধ করে রাখেন। -সিভয়েস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •