সিবিএন ডেস্ক:
বাংলাদেশে বসবাসরত দ্বৈত নাগরিক ও পাসপোর্টধারী ১৩ হাজার ৯৩১ জনের তালিকা হাইকোর্টে দাখিল করা হয়েছে। বুধবার (৩১ মার্চ) পুলিশের বিশেষ শাখার পুলিশ সুপার (ইমিগ্রেশন) অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে দ্বৈত নাগরিকের তালিকাসহ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে এই প্রতিবেদনের ওপর শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

গত বছরের ২১ ডিসেম্বর হাইকোর্টের এক আদেশে বাংলাদেশে বসবাসকারী দ্বৈত নাগরিক ও পাসপোর্টধারীদের তালিকা চেয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সেই তালিকা দাখিল করতে পুলিশের বিশেষ শাখার পুলিশ সুপারকে (ইমিগ্রেশন) নির্দেশ দেয়া হয়। ওইদিন কানাডাসহ বিভিন্ন দেশে অর্থপাচারকারীদের পরিচয়, ঠিকানাসহ অর্থপাচারের যাবতীয় তথ্য জানতে চাওয়ার ধারাবাহিকতায় বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছিলেন।

পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে গত বছরের ২২ নভেম্বর বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এক আদেশে বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের সব ধরনের তথ্য চান।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ‘আমার কাছে ২৮টি কেস এসেছে। এরমধ্যে রাজনীতিবিদ হলেন চারজন। রাজনীতিবিদরা নন, বিদেশে বেশি অর্থপাচার করেন সরকারি চাকরিজীবীরা।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •