প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
অচিরেই কুতুবদিয়া উপজেলায় বসবাসরত লোকজনের নিরাপত্তা শতভাগ নিশ্চিত হবে। ১০৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন বেঁড়িবাধ নির্মাণ কাজ দ্রুততম সময়ের মধ্যে সম্পন্ন হবে। বিগত সময়ে বেঁড়িবাধ নির্মাণের জন্য কোন কাজ না করায় এ অবস্থার সৃস্টি হয়েছে। ঘুর্ণীঝড় কিংবা জোয়ারের পানি নিয়ে আর ভয়ের মধ্যে থাকতে হবেনা। কুতুবদিয়াকে একটি আধুনিক দ্বীপে পরিণত করতে কাজ করছে সরকার। ইতোমধ্যে সাবমেরিন ক্যাবলের মধ্যে জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। প্রধান সড়কের উন্নয়ন করা হয়েছে। নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে মহিলা কলেজ স্থাপন করা হয়েছে। তিনি ২৯ মার্চ কুতুবদিয়ায় নির্মাণাধীন বেঁিড়বাধ পরিদর্শন ও স্থানীয় লোকজনের উদ্দেশ্যে একথা বলেন। তিনি আরো বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের পাশেই রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর মনোনীত জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করলে উন্নয়ন আরো তরান্বিত হবে। তিনি আপনাদের ভালবাসেন বিধায় ৯১ এর ঘুর্ণীঝড়ের পরের দিনই আপনাদের পাশে এসে দাড়িয়েছিলেন। তৎকালীন সরকার কুতুবদিয়ার অসহায় মানুষের নিয়ে উপহাস করেছিলেন। উন্নয়ন কর্মকান্ডে বিমাতাসুলভ আচরণ করে কুতুবদিয়ায় কিছুই করেননি। যার ফলে কুতুবদিয়া উন্নয়নে পিছিয়ে পড়ে। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডঃ ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবল হক মুকুল, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম কুতুবী, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শফিউল আলম কুতুবী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুচ্ছফা বিকম। এছাড়া বিকেল ৩টায় তিনি উত্তর ধুরুং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইয়াহিয়া খান কুতুবী ও লেইমশীখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজাউল করিমের সমর্থনে আয়োজিত একাধীক পথ সভায় বক্তব্য রাখেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •