সিবিএন ডেস্ক:
আগামীকাল ১৪ শাবান সোমবার দিবাগত রাত পবিত্র শবে বরাত। হিজরি সনের শাবান মাসের ১৪ তারিখ রাতটি মুসলিম উম্মাহ সৌভাগ্যের রজনী হিসেবে পালন করে। মহান আল্লাহ তাআলা এই মর্যাদাপূর্ণ রাতে বান্দাদের জন্য তার অশেষ রহমতের দরজা খুলে দেন, গুনাহ মাফ করে দেন ও বান্দার রিজিকের ফায়সালা করেন।

তাই ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা রাত জেগে নফল নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত, জিকির আসকারের মাধ্যমে পরম করুণাময়ের অনুগ্রহ লাভের আশায় ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন থাকবেন। করোনা মহামারি থেকে মুক্তির জন্য আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের সাহায্য প্রার্থনা করবেন। অনেকে দান-খয়রাত করবেন।

পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলাদা বাণী দিয়েছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের পক্ষ থেকেও শবে বরাত উপলক্ষে বাণী প্রদান করা হয়েছে।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন এ উপলক্ষে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে বাদ মাগরিব ওয়াজ মাহফিল এবং বাদ এশা দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করেছে। ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা মহিমান্বিত এই রাতে অতীতের গুনাহের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা এবং ভবিষ্যৎ জীবনের কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করবেন। অনেকে রাতভর ইবাদত করে ভোরে কবরস্থানে যাবেন। চিরনিদ্রায় শায়িত আপনজনদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করবেন।

এছাড়া যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় পবিত্র শবে বরাত পালনের জন্য দেশব্যাপী মসজিদ, মাদ্রাসা, খানকা ও দরবার শরীফ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন এ উপলক্ষে আলোচনা সভা, ওয়াজ মাহফিল, দোয়া ও মোনাজাতসহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

ইবাদত-বন্দেগির পাশাপাশি সামাজিক রেওয়াজ হিসেবে বাড়ি বাড়ি হালুয়া, ফিরনি, রুটিসহ হরেক রকমের উপাদেয় খাবার তৈরি করা হবে। অনেকে এসব খাবার বিতরণ আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী ও গরিব-দুঃখীর মধ্যে করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •