সিবিএন ডেস্ক:
ভারতের পাঞ্জাবে আন্দোলনকারী কৃষকেরা বিজেপির এক নেতাকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিজেপির নেতা অরুণ নারাং ও তাঁর সঙ্গীরা পাঞ্জাবের মুখতাছার জেলায় গিয়ে এ হামলার শিকার হন। খবর এনডিটিভির।

খবরে বলা হয়, অরুণ নারাং ও তাঁর সঙ্গীদের লক্ষ্য করে প্রথমে কালি ছোড়েন কৃষকেরা। পরবর্তীতে শুরু হয় মারধর। একপর্যায়ে নেতার জামা ছিড়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

পুলিশ জানিয়েছে, কেন্দ্রের নতুন কৃষি আইনের সমর্থনে সংবাদ সম্মেলনে যাওয়ার সময় উত্তেজিত মানুষের ভিড় ওই নেতাকে ঘিরে ধরে। এরপর পুলিশ একটি দোকানে সবাইকে ঢুকিয়ে দেয়।

পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে ভেবে সবাই বের হয়ে এলে তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে জনতা। কিল, চড় ও ঘুষি মারতে থাকে ভিড়ের মধ্যে। এক মুহূর্তে ওই বিজেপি নেতার জামা ছিড়ে দেওয়া হয়। ওই সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ঘটনার পর সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিজেপি নেতা অরুণ নারাং বলেন, ‘এলোপাতাড়ি ঘুষি মারা হয় আমাকে। জামা কাপড়ও ছিড়ে দেওয়া হয়।’

এ ঘটনায় এখনও থানায় অভিযোগ জানাননি অরুণ নারাং। দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে পুলিশ আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে ৩০৭ (খুনের চেষ্টা)-সহ একাধিক ধারায় মামলা করেছে। হামলাকারীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংহসহ আরও অনেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •