এম.এ আজিজ রাসেল :
সমাজসেবা অধিদপ্তরাধীন কক্সবাজার শহর সমাজসেবা কার্যালয় কতৃর্ক পরিচালিত সমন্বয় পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন উৎসব মুখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (২৭ মার্চ) শহীদ সরণিস্থ শহর সমাজসেবা কার্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলে। বিকাল ৫টায় ভোট গণনা শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত ফলাফলে বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম কামাল হোসেন প্যানেল নিরঙ্কুশ বিজয় লাভ করেন।
নির্বাচন কমিশন সুত্র জানায়, নির্বাচনে ১০টি পদের মধ্যে ৫টি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন দুই প্যানেলে ১২ জন প্রার্থী। আর ৫টি পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়। নির্বাচনে তারমধ্যে ৮৬ জন ভোটারের মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ৮২ জন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতরা হলেন, সহ—সভাপতি পদে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের মহাপরিচালক এম.এম সিরাজুল ইসলাম, সহ—সভাপতি পদে কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মাহবুবর রহমান, সহ—সভাপতি পদে জাতীয় মহিলা সংস্থার সাবেক চেয়ারম্যান রবুয়া বেগম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে সাবেক পৌর কমিশনার আবু জাফর ছিদ্দীকি ও প্রচার ও জনসংযোগ বিষয়ক সম্পাদক পদে বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমীর প্রধান শিক্ষক মো. ছৈয়দ করিম। এছাড়া সভাপতি পদে চেয়ার প্রতীক নিয়ে ৪২ ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম কামাল উদ্দিন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি কাউন্সিলর আশরাফুল হুদা সিদ্দিকী জামশেদ গোলাপ ফুল প্রতীক নিয়ে ৩৮ ভোট পেয়েছেন। প্রজাপতি প্রতীক নিয়ে ৪৬ ভোট পেয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ঝিনুকমেলা প্রশিক্ষণ একাডেমীর পরিচালক ডা. চন্দন কান্তি দাশ। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মোহাম্মদ শাহজাহান দেয়াল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে ৩১ ভোট পেয়েছেন। তালাচাবি প্রতীক নিয়ে কোষাধ্যক্ষ পদে সর্বোচ্চ ৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক ফরিদ আহমদ। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মো. ফারুক আজম চাকা প্রতীক নিয়ে ২৭ ভোট পেয়েছেন। ফুটবল প্রতীক নিয়ে সাহিত্য, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পদে ৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের ক্রীড়া সংম্পাদক সাংবাদিক দীপক শর্মা দিপু। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আরিফুল ইসলাম টিপু বই প্রতীক নিয়ে ৩২ ভোট পেয়েছেন। নির্বাহী সদস্য পদে কাপ—পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমীর সহকারী প্রধান শিক্ষক আবদুল মালেক কুতুবী। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি নুরুল আবছার সিকদার আপেল প্রতীক নিয়ে ৩১ ভোট পেয়েছেন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •