আলমগীর মানিক,রাঙামাটি :
রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে অবৈধভাবে জাঁক দিয়ে নিষিদ্ধ জাল ব্যবহার করে মা-মাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ধরছে মুনাফালোভি কিছু মাছ ব্যবসায়ি। হতদরিদ্র সাধারণ পরিবারের লোকজনকে ভালো বেতনের আশ^াস দিয়ে এসব অবৈধ জাঁকে মাছ ধরাচ্ছে এই চক্রটি। শনিবার রাঙামাটি শহরের উপকন্ঠে কলেজ গেইটস্থ কাঁটা পাহাড় এলাকায় এই ধরনের একটি জাঁক ঘেরাও করে সেখানে বানানো অক্সিজেন লাগিয়ে পানির তলদেশে পাঠানো হয় রাসেল নামের এক অনভিজ্ঞ যুবককে। কিন্তু পানির নীচে অক্সিজেনের অভাবে শ^াস বন্ধ হয়ে রাসেল সেখানেই মারা যায়।
৩০ বছর বয়সী রাসেল রাঙামাটির লংগদু উপজেলাধীন আটারক ছড়া ইউনিয়নের করলাছড়ি গ্রামের বাসিন্দা এবং ছেলে-মেয়ে দুই সন্তানের জনক বলে জানাগেছে। রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শনিবার দুুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তপন বিকাশ চাকমাসহ তিনজন লোক রাসেলকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।
এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাসেলকে হাসপাতালে আনার আগেই মারা গেছে বলে জানালে নিহতের মরদেহ ফেলে উক্ত তিন ব্যক্তি হাসপাতাল ত্যাগ করে। বিষয়টি নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিপাকে পড়ে যায়। পরে বিষয়টি জানিয়ে কোতয়ালী থানায় খবর দেওয়া হয়। থানার এসআই দেলোয়ারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে মরদেহটির সুরতহালসহ প্রাথমিক রিপোর্ট তৈরি করে।
এদিকে রাসেলের পরিবারের সদস্যরা খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে রাসেলের লাশ নিজেদের বলে শনাক্ত করে। এসময় নিহতের ছোট ভাই মোস্তফা জানায়, তার ভাই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এমন খবর জানানো হয় তাকে। পরে হাসপাতালে এসে জানতে পারেন অপরিচিত তিন লোক তার ভাইকে হাসপাতালে এনে ফেলে রেখে যায়।
খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, রাসেল রাঙামাটি কলেজ গেইটের বাসিন্দা জনৈক মাছ ব্যবসায়ি সোনাইয়া’র জালের নৌকায় কাজ করতে চুক্তিবদ্ধ হয়। কাটাছড়িতে সোনাইয়ার জাঁকে জাল ফেলে অক্সিজেন পাইপ ব্যবহার করে তলদেশে আটকে থাকা জাল খুলতে পাঠানো হয় রাসেলকে। সেখানে গিয়ে জ¦ালে পা আটকে গিয়ে সে আর উপরে উঠতে পারেনি। পরবর্তীতে কোমরে বেঁধে রাখা পাইপ টেনে রাসেলকে উঠানো হয় বলে জানিয়েছে সেই নৌকার অপর জেলে চাকমা যুবক সুমন।
এদিকে অবৈধ জাঁকের মালিক মাছ ব্যবসায়ি সোনাইয়ার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমি নিহতের পরিবারের জন্য অপেক্ষা করছি তারা আসলে সমঝোতা করার চেষ্ঠা করবো। রাসেল মারা যাওয়ার পর হতে আপনি পলাতক রয়েছেন কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিবেদককে তিনি বলেন, আসলে রাসেল মারা যাওয়ায় আমি ভয় পেয়ে নিজেকে একটু আড়ালে রেখেছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •