অনলাইন ডেস্ক: ইসরায়েলের নির্বাচনের পর গত দু বছরের মধ্যে চতুর্থবারের মতো বারবারই একই সমস্যা দেখা দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পরেও ক্ষমতায় থাকার জন্য প্রয়োজনীয় আসন পাননি।

প্রধানমন্ত্রী বা তার প্রতিপক্ষ – কেউই আসলে ক্ষমতায় যাবার মতো নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাননি। এরই মধ্যেই কিংমেকার হয়ে উঠেছে রাম নামে একটি ইসলামপন্থী আরব দল (ইউনাইটেড আরব লিস্ট হিসেবেও দলটি পরিচিত)।

এবারের নির্বাচনে পাঁচটি আসনে জয় পেয়েছে রাম- যা নেতানিয়াহুকে ক্ষমতায় রাখা বা ক্ষমতা থেকে বিদায় করে দিতে ভূমিকা রাখার সুযোগ করে দিয়েছে।

মানসুর আব্বাস

রক্ষণশীল মুসলিম মানসুর আব্বাসের নেতৃত্বে রাম দলটি মূলত ফিলিস্তিনের গাজা শাসন করা হামাসের ধর্মীয় ভাবধারায় গড়ে ওঠা একটি ইসলামপন্থী দল। ১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এই দলটি শুরু থেকে ইসরায়েলের পার্লামেন্ট আসন পেয়ে আসছে। যদিও ২০০৯ সালের নির্বাচনে অংশ নেয়ার ক্ষেত্রে তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলো দেশটির নির্বাচনী কর্তৃপক্ষ। পরে সুপ্রিম কোর্ট ওই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে দেয়। ২০২০ সালে ইসরায়েলের আরব রাজনৈতিক দলগুলোর জোট- জয়েন্ট আরব লিস্টের অংশ ছিলো যারা নজিরবিহীন ভাবে ১৫ সিট পেয়েছে পার্লামেন্টে।

৪৬ বছর বয়সী মানসুর আব্বাস হলেন দলটির দায়িত্ব পালন করছেন। ইসরায়েলের রাজনৈতিক ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ সময়টিতে তিনি এখন রাজনীতির কেন্দ্রে রয়েছেন।

সুত্র: বিবিসি বাংলা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •