অনলাইন ডেস্ক: ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতির মুখপাত্র মোহাম্মদ আবদুল-সালাম বলেছেন, তারা সৌদি আরবের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপনের জন্য প্রস্তুত রয়েছে। আল- অ্যারাবিয়া টিভির এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

আবদুল-সালাম বলেছেন, জনস্বার্থে তাদের নৌবন্দর ও বিমানবন্দরগুলো পুনরায় চালু করা প্রয়োজন। এ সম্পর্কে আমরা ওমানকে জানিয়েছি।

ওমান ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতিদের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক পুনঃস্থাপনে মধ্যস্ততা করছে।

গত সোমবার (২২ মার্চ) থেকে ইয়েমেনে শান্তি ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে এবং দেশটির জনগণকে সহায়তা প্রদানসহ সেখানে ছয় বছর ধরে চলা যুদ্ধ বন্ধ করার বিস্তৃত উদ্যোগ শুরু করেছে সৌদি আরব।

সৌদির নেওয়া পরিকল্পনায় জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে দেশব্যাপী যুদ্ধবিরতি, সানা বিমানবন্দর পুনরায় চালু করা এবং বিরোধের রাজনৈতিক সমাধানে পৌঁছানোর জন্য নতুন আলোচনার কথা বলা হয়েছে।

জানা গেছে, এই যুদ্ধবিরতি চুক্তির ফলে হোদাইদার লোহিত সমুদ্র বন্দরে নিষেধাজ্ঞাগুলি শিথিল করা হবে। ফলে সেখানে পুনরায় জাহাজ এবং পণ্যবাহী যান চলাচল করবে এবং করসহ বন্দরের সকল আয় স্টকহোম চুক্তি অনুসারে হোদাইদার কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা পড়বে। সৌদির নেওয়া এই শান্তি পরিকল্পনা মধ্যপ্রাচ্যসহ ও বিশ্বজুড়ে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে।

এর আগেও সৌদি শর্তসাপেক্ষে শান্তি পরিকল্পনা ও যুদ্ধবিরতির চেষ্টা চালিয়েছিল। কিন্তু সেই চুক্তিতে ইয়েমেনের সাধারণ জনগণের অধিকার খর্ব হবে এমন অভিযোগে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল স্বাধীনতাকামী হুতি বিদ্রোহীরা। আরব নিউজ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •