সংবাদদাতা:

রামুতে ফসলি জমির মাটি কেটে ব্যবহার হচ্ছে ইটভাটায়। ফলে পরিবেশ হচ্ছে নষ্ট তেমনিভাবে ফসলি জমি হারাচ্ছে উর্বরতা।

কক্সবাজার সদর রামুর মেরুল্লা এলাকার প্রধান সড়কের পশ্চিম পাশে। জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে বেশ কিছু ফসলি জমির মাটি কেটে ব্যবহার হচ্ছে ইটভাটায়।

যে জমি গুলোতে প্রতি বছর চাষ করে ৫০০ থেকে ১০০০ আড়ি ধান উৎপাদন হতো ৪ বছর ধরে সে জমি গুলোতক দেখা নেই কোন সবুজের চিহ্ন, হচ্ছে না কোন চাষবাষ। গত দুই বছর আগে থেকে মাটি কাটা শুরু হয়ে এখনো পর্যন্ত মাটি কাটা শেষের কোন নাম নেই।

স্থানীয়দের অভিযোগ এভাবে চলতে থাকলে অল্প কিছু দিনের মধ্যে রামুতে চাষযোগ্য আর কোন জমি থাকবে না।

পাশা পাশি ৩৫ থেকে ৪০ জন জমির মালিক থাকায় মুষ্টমেয় কয়েকজন টাকার লোভে পড়ে তাদের নিজের জমিতে মাটি কাটতে দেয়ায় জমির উর্বরতা হারাচ্ছে এবং পাশের জমি গুলো হারাচ্ছে ফসল উৎপাদনের ক্ষমতা।

এদিকে কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা যায় ফসলি জমির উপরিস্থরের ছয় ইঞ্চি গভীরতায় মাটি কেটে নিলে মাটির উর্বরতা হারায়।

এই বিষয়ে দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন দীর্ঘদিন ধরে একই জমিতে চাষ করে আসা স্থানীয় কৃষকেরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •