অদ্য ২৪ মার্চ বুধবার দৈনিক বাঁকখালী এবং দৈনিক আপন কন্ঠ পত্রিকায় ‘ রামুতে ৮ হাজার ইয়াবা সহ ব্যবসায়ী আবদুল গফুর আটক’ শিরোনামের প্রকাশিত সংবাদে আমাকে এবং আমার ছেলে আজিজ মাহমুদ কে জড়িয়ে যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে তা মিথ্যা, বানোয়াট ও কাল্পনিক। একটি কুচক্রী মহল তাদের স্বার্থ হাসিলের উদ্দ্যেশ্যে ইয়াবা ব্যবসায়ী বানানোর চেষ্টা করছে যা একটি সাজানো নাটক।

জীবনের কোন সময়ে আমি এবং আমার ছেলে কোন দিন ইয়াবা ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত ছিলাম না এবং নেই। একটি মহল ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করে স্বার্থ হাসিলে উঠে পড়ে লেগেছে।

উক্ত সংবাদ পত্রগুলিতে প্রকাশিত সংবাদে স্থানীয়দের দাবী বলে আমার এবং আমার ছেলের বিরুদ্ধে যে কথাগুলো বলা হয়েছে তা ষড়যন্ত্রেরই অংশবিশেষ। একথা স্পষ্ট যে, আমি একজন ব্যবসায়ী এবং আমার ছেলে একটি বেসরকারী কোম্পানিতে কর্র্মত।

একটি কুচক্রী মহল আমার এবং আমার ছেলের বিরুদ্ধে বদনাম রটাতে কয়েকজন সংবাদকর্মীকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেছেন। উক্ত সংবাদে আমি (জাফর আলম) এবং আমার ছেলে আজিজ মাহমুদ কে জড়িয়ে যে লিখা প্রকাশ করা হয়েছে তা উদ্দেশ্যপ্রণীতভাবে ছাপানোর ব্যবস্থা করেছে একটি মহল। আমার মতে, আমাকে এবং আমার ছেলেকে ইয়াবা ব্যবসায়ী সাজাতে পারলে ঐ মহলটির বিশেষ কোন ফায়দা হাসিল হবে।

তাই আমার এবং আমার ছেলের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। পাশপাশি উক্ত মিথ্যা সংবাদে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ কাউকে বিচলিত না হওয়ার জন্য বিশেষ ভাবে আহবান জানাচ্ছি। পরবর্তিতে পুনর্য়ায় আমি এবং আমার ছেলের বিরুদ্ধে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশ করলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো।

প্রতিবাদকারী
জাফর আলম
পিতা: মৃত দুদু মিয়া
পূর্ব খরুলিয়া , নয়াপাড়া , ঝিলংজা কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •