মোঃ আকিব বিন জাকের, মহেশখালী

মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের ইউনুছখালীর মাইজপাড়া গ্রামের বাসিন্দা জসীম।
জন্মের পর থেকেই কপাল, চোখ ও মুখ জুড়েই কদাকার প্লেক্সিফর্ম নিউরোফাইব্রোমা টিউমার নিয়ে অস্বাস্থ্যকর এবং অভিশপ্ত জীবন যাপন করছেন। নষ্ট হয়ে যায় তার ডান চোখ।

এদিকে গত ১১ ই মার্চ মাইজপাড়ায় এক সড়ক দূর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাইয়ের নজর কাড়ে জসীমের বিকৃত চেহারা। তাৎক্ষণিকভাবেই তিনি তার ফেইসবুক একাউন্ট থেকে লাইভে গিয়ে সামর্থ্যবানদের প্রতি জসিমের চিকিৎসার জন‍্য আর্থিকভাবে পাশে থাকার আহ্বান জানান। সেই লাইভ নজর কাড়ে আরেক মহান ব‍্যাক্তিত্বের। ওসি সাহেবের লাইভ ভিডিওর প্রতি অণুপ্রাণিত হয়ে কালারমারছড়া ইউনিয়নেরই বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী নুরুল কবির ওসির মধ‍্যস্থতায় জসিমের চিকিৎসার জন‍্য নগদ ০১ লক্ষ টাকা অনুদান প্রদান করেন।

অবশেষে ২০ ই মার্চ ঢাকার শেরেবাংলা নগর কেয়ার মেডিক্যাল হাসপাতালে ওসি আব্দুল হাইয়ের সার্বিক নির্দেশনায়, মহেশখালীর কৃতি সন্তান দেশের একমাত্র নিউরোসার্জন ডা. মোঃ শামসুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে বিকাল সাড়ে ৩ টা থেকে রাত সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত টানা সাড়ে ৪ ঘন্টার সফল অপারেশনের মাধ্যমে জসীম ফিরে পায় এক নতুন এবং স্বপ্নের জীবন। যেই জীবন তাকে নতুনভাবে ভাবাবে। দেখাবে সুন্দরভাবে আর দশটা মানুষের মতো বেচেঁ থাকার স্বপ্ন।

জসীমের স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাওয়া প্রসঙ্গে ওসি আব্দুল হাই বলেন, ” জসিমের পাশে দাড়াতে পেরে নিজেকে খুবই ধন‍্য মনে করছি। মানুষ হিসেবে আমাদের সবারই দায়িত্ব মানুষের পাশে দাড়ানো। যদি আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে এভাবে অসহায়দের পাশে দাড়াই তাহলে আমাদের সমাজে হয়তো অসুখী কোনো মানুষ থাকবেনা। হাসি ফুটবে সবার মুখে। সুন্দর হবে সমাজ।”

জসীমকে নতুন এক জীবন উপহার দেওয়ার জন‍্য -ওসি আব্দুল হাই, সৌদি প্রবাসী নুরুল কবির এবং সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া সকলের প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন তার পরিবার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •