সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
আমার বাংলাদেশ পার্টির (এবি পার্টি) কেন্দ্রীয় আহবায়ক এ এফ এম সোলাইমান চৌধুরী বলেছেন, এবি পার্টি কোন ব্যক্তির দল নয়। এটি কোন গোষ্ঠী বা পরিবারে দল নয়। এবি পার্টি জনগণের দল। এই দলের নেতা নির্বাচন কর্মীদের মাধ্যমে হয়ে থাকে।

তিনি বলেন, দলের সর্বস্তরে দলের গঠনতন্ত্র মেনে কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

শনিবার (১৯ মার্চ) রাতে শহরের একটি তারাকা হোটেলের সম্মেলন কক্ষ অনুষ্ঠিত কক্সবাজার জেলা এবি পার্টির এক সভায় তিনি এই কথা বলেন।

এতে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার জেলা এবি পার্টির আহবায়ক এড. এনামুল হক সিকদার।

তিনি বলেন, তাঁর কর্ম জীবনে ২৭ টি স্থানে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন। পাঁচ বছর ধরে গোয়েন্দারা তাঁর কাজের অসঙ্গতি খোঁজেছেন। কিন্তু আল্লাহর মেহেরবানীতে তারা ফেল কেরেছে।

তিনি পারস্পরিক যোগাযোগ ও ঐক্যবদ্ধভাবে সকল নেতা কর্মীদের কাজ করার আহবান জানান।

কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর কাসেম বলেন, আমরা একটা আশা আকাঙ্খা নিয়ে এবি পার্টিতে এসেছি।
এবি পার্টি শুধু কক্সবাজারে নয় সারা দেশে চমৎকারভাবে কাজ করছে। তবে দরকার সর্বস্থরে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ও ঐক্য। এবিষয়ে তিনি নেতা কর্মীদের সতর্ক দৃষ্টি রাখার আহবান জানান।

কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব প্রখ্যাত আইনজীবী এড. তাজুল ইসলাম বলেন, এবি পার্টি বাংলাদেশকে একটি ওয়েল ফেয়ার ষ্টেট বা কল্যাণ রাষ্ট্র করতে চায়। আমরা এবি পার্টি প্রতিষ্ঠা করেছি দেশটাকে বদলানোর জন্য, ইতিহাস সৃষ্টির জন্য।

তিনি বলেন, এবি পার্টি যে ঐতিহাসিক পরিবর্তনের জন্য কাজ করছে নেতা কর্মীদের তা বুঝতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাস পরিবর্তনের জন্য কক্সবাজারের নেতা কর্মীরা এগিয়ে যাবেন বলে তিনি আশা করেন।

তিনি বলেন, নেতা কর্মীদেরকে দলের বৃহত্তর স্বার্থে সব ধরণের ভুলবুঝাবুঝি ভুলে গিয়ে কাজ করতে হবে।

কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিষ্টার সানী আব্দুল হক বলেন, আমরা একটি ভূখন্ড পেয়েছি। কিন্তু ৫০ বছরেও অর্থবহ স্বাধীনতা আমরা পাইনি। এখনো জাতীয় একটি ঐক্য সৃষ্টি হয়নি। এবি পার্টি ৭ দফা কর্মসূচীর মাধ্যমে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে চায়।

এবি পার্টি বহুমতের ও বহু চিন্তার একটি দল। এখানে সকলের জন্য চিন্তা ও মতামত ব্যক্ত করার পূর্ণ স্বাধীনতা আছে। তবে স্বাধীন মতামত ব্যক্ত করারও একটা লিমিটেশন আছে। তা লঙ্ঘন করা ঠিক না।
যৌথভাবে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা আহবায়ক এড. এনামুল হক সিকদার ও জেলা সদস্য সচিব এড. গোলাম ফারুক খান কায়সার।

সভায় জেলা কমিটির সদস্য ও উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে এবি পার্টির কেন্দ্রীয় আহবায়ক এ এফ এম সোলাইমান চৌধুরী, যুগ্ম-আহবায়ক এড. তাজুল ইসলাম ও ব্যারিষ্টার সানী আব্দুল হককে জেলা কমিটি, উখিয়া ও রামু কমিটি এবং ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •