মোহাম্মদ হোসেন, হাটহাজারী:
উপকারী নভেল বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়া দ্বারা উৎপাদিত জৈব পণ্য ব্যবহার করে বেগুনের ঢলে পড়া রোগ নিয়ন্ত্রণের প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও বিস্তার” শীর্ষক কর্মশালা শনিবার (২০ মার্চ) গবেষণা কেন্দ্রের উদ্যানত্ব সেমিনার কক্ষে অনুষ্টিত হয়। হাটহাজারী আঞ্চলিক কৃষি ইনস্টিটিউট গবেষণা কেন্দ্র মূখ্য বৈজ্ঞানিক ড.মোঃ খলিলুর রহমান ভুইয়া সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক কৃষিবিদ ড.কামরুল হাসান পরিকল্পনা ও মূল্যয়ন বিএআরআই গাজীপুর। কৃষিতে নভেল বেসিলাস এর ব্যবহার এবং প্রয়োগ নিয়ে হাতে কলমে এবার নতুনভাবে যোগ হলো উপকারী নভেল বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়া।
ব্যাক্টেরিয়ার নাম শুনলেই মানুষ আগে ভয় পেতো, এখন আর ভয় নয়, বন্ধু হিসেবে
বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়াকে গ্রহণ করা যাবে। কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়ার ব্যবহার ও প্রয়োগ নিয়ে এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় এমনটিই জানিয়েছেন কৃষি গবেষকরা।
সম্প্রসারণ কর্মী, গবেষণা সহকারী, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব এবং কৃষকদের নিয়ে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ ড. আব্দুল রশীদ মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কৃষি অর্থনীতি বিভাগ বিএআরআই গাজীপুর।
প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ ড.মুহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন রনি কর্মসৃচি পরিচালক। উপস্থি ছিলেন প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মুক্তাদির আলম।
বক্তারা বলেন,উপকারী বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়াগুলো শক্তিশালি পেপ্টাইডোগ্লাইকোন এর মাধ্যমে প্রতিকুল অবস্থায় গাছকে খাদ্যরস গ্রহণে সহয়তা করে শক্তিশালি করে যার ফলে জীবাণুরা অবস্থান করতে পারে না। ফলে গাছ আর ঢলে পড়ে না। পরে সভাপতি, কর্মসূচি পরিচালক কৃৃষক মিডিয়া এবং সম্প্রসারণ কর্মীদের নিয়ে মাঠে বেসিলাস প্রয়োগ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •