ছোটন কান্তি নাথ, চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সুদের টাকা না পেয়ে এক নারীকে (গৃহিনী) গাছের সাথে বেঁধে পেটানোসহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার একটি ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। এনিয়ে চারিদিক থেকে নিন্দা ও প্রতিবাদসহ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি উঠলে পুলিশ অভিযান চালায় ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে।
এ ঘটনায় পুলিশ জহির আলম (৫৫) নামের একজনকে আটক করেছে। ভাইরাল হওয়া নির্যাতনের ভিডিওচিত্রটি গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে প্রত্যক্ষদর্শী কেউ একজন মোবাইলে ধারণ করেন এবং আজ দুপুরে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।
হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মাহতাবুর রহমান জানান, ঘটনার মূলহোতাকে ধরতে আজ বুধবার দুপুরে পুলিশ অভিযান চালাতে যায় বাড়িতে। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতির খবর পেয়ে ঘটনার মূলহোতা শওকত আলমকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করায় পুলিশ তার বাবা জহির আলমকে আটক করে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন নির্যাতিতা নারী নূর আয়েশা। তিনি উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের হাফালিয়া কাটাস্থ সবুজ পাড়ার দিনমজুর আলী হোসেনের স্ত্রী। অপরদিকে আটক জহির আলম এবং পলাতক শওকত আলমও একই এলাকার বাসিন্দা।
এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, এই অমানবিক ঘটনায় যারাই জড়িত রয়েছে তাদের সবাইকে আইনের আওতায় নেওয়া হবে। ইতোমধ্যে পুলিশের তৎপরতা শুরু হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •