সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
উখিয়ার পশ্চিম গয়ালমারা জামে মসজিদ ও তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার বার্ষিক মাহফিল ও দস্তারবন্দী অনুষ্ঠান সোমবার (১৫ মার্চ) সম্পন্ন হয়েছে।

মাহফিলে প্রাণবন্তু আলোচনা করেন নাইক্ষ্যংছড়ি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব, প্রখ্যাত মুফাসসীরে কোরআন মাওলানা বশির উদ্দিন।

তিনি বলেন, যারা ঈমান এনে এর উপর টিকে থাকবেন তাদের জন্য আল্লাহ পাক সুসংবাদ দিয়েছেন। ফেরেস্তা পাঠিয়ে তাদের জানানো হবে, দুনিয়া আখেরাতে তোমাদের কোন ভয় নেই।

ফেরেস্তারা বলবে, তোমাদের জান্নাতের সুসংবাদ দেয়া হচ্ছে, যে জান্নাতের ওয়াদা আল্লাহ পাক দিয়েছন। আর জান্নাতে তোমরা যা চাও তা পাবে।

মাওলানা বশির আলোচনায় আরো বলেন, রসুল সঃ বলেন, মানুষ মারাগেলে সব আমল বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু তিনটি জিনিস কবরে কাজে লাগবে। সাদকায়ে জারিয়া, মানুষের উপকার হয় মত ইলমের ছওয়াব এবং নেক্কার সন্তান রেখে গেলে -যারা মা-বাবার জন্য দোয়া করবে।

আলহাজ্ব শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে মাহফিলে প্রধান বক্তা বলেন, ঈমানের উপর টিকে থাকার জন্য কোন ধরণের শিরক ও তাগুতের অনুসরণ করা যাবে না।

মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- রত্মাপালং ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল কবির চৌধুরী, সাংবাদিক শামসুল হক শারেক, মেম্বার মীর আহমদ চৌধুরী, সাবেক মেম্বার মাহমুদুল হক চৌধুরী, আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুল হাকিম খান, সৈয়দ হোসাইন চৌধুরী, গয়ালমারা দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা দিল মোহাম্মদ।

মাহফিলে ৪ জন হাফেজে কুরআনকে দস্তারে ফজিলত বা পাগড়ি পরানো হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •