ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজারে হঠাৎ বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। প্রতিদিন ধরা পড়ছে নতুন আক্রান্ত রোগি।

বিশেষ করে, গত এক সপ্তাহে করোনা শনাক্তের হার বিগত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় বেশি। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবের রিপোর্ট তাই বলছে।

রোববার (১৪ মার্চ) কক্সবাজার জেলায় মোট ৪৬৫ নমুনা টেস্টে ১৬ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। ১৫ মার্চ পজিটিভ হয়েছে ১১ জনের। এর আগে ১৩ মার্চ শনাক্ত হয় ১০ জনের। তার আগের দিন ছিল ১২ জন। এভাবে প্রতিদিন বাড়ছে রোগির সংখ্যা।

পরিসংখ্যান বলছে, বিগত এক সপ্তাহ আগেও করোনা শনাক্ত ২-৩ জনে ছিল। হঠাৎ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সর্বমহলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। আর প্রশাসনও নতুন পরিস্থিতিকে গুরুত্ব দিচ্ছে।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবের তথ্য অনুযায়ী- আক্রান্তদের মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলায় ১০ জন, উখিয়া উপজেলায় ২ জন, টেকনাফ উপজেলায় ১ জন এবং রোহিঙ্গা শরনার্থী ৩ জন। গত ১৩ মার্চও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৩৬৫ জনের নমুনা টেস্ট করে ১৪ জনের টেস্ট রিপোর্ট পজেটিভ পাওয়া যায়। যা স্বাস্থ্য বিভাগ সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ভাবিয়ে তুলেছে।

জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, সাম্প্রতিক করোনা সংক্রমণ হার এবং মৃত্যুর হার গত কয়েক মাসের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। সংক্রমণের হার রোধকল্পে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে জনগণকে সচেতন করতে লাবণী পয়েন্ট, সুগন্ধা পয়েন্ট ও কলাতলী পয়েন্টসহ কক্সবাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে সচেতনতামূলক অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাখন চন্দ্র সূত্রধর, সাদিয়া সুলতানা এবং সৈয়দ মুরাদ ইসলাম।

অভিযানকালে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে ছিল জেলা পুলিশ এবং ৩৯ আনসার ব্যাটালিয়ন।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক জনসচেতনতা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নাই। যারা নির্দেশনা অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ডিসি মো. মামুনুর রশীদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •