এহসান আল কুতুবীঃ
রামুর ফতেখাঁরকুলে চাহিদা অনুযায়ী জমি বিক্রি না করায় মৌলভী সাহাব উদ্দিন নামে এক ব্যক্তিসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৭-৮ জনের বিরুদ্ধে জোর পূর্বক জমি দখল ও ভরাটের অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার রামু থানায় এ ব্যাপারে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগটি দায়ের করেন জমির মালিক আবদুর রহমান।

তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, আমরা পিতার ওয়ারিশ সূত্রে প্রায় ৩০ বছর ধরে ফতেখাঁরকুল মৌজায় ১৬ শতক জমিটি ভোগ করে আসতেছি। আমাদের নামে সৃজিত বিএস খতিয়ানও আছে। কিন্তু, জমি থেকে আমাদের বাড়ি দূরে হওয়ায় মৌলভী সাহাব উদ্দিনের লোভ পড়ে জমির ওপর। সাহাব উদ্দিন প্রথমে ৬ শতক জমি তাকে বিক্রির জন্য প্রস্তাব দেয়। কিন্তু, আমরা তার প্রস্তাবে রাজি হইনি। এরপর থেকে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে আসছে।

আবদুর রহমান আরো জানান, জমি বিক্রি না করলে সাহাব উদ্দিন জোর পূর্বক দখলে নেয়ার ও তাতে বাঁধা দিলে আমাদের মারধর, খুনের মতো নৃশংস ঘটনা করার হুমকি দিয়ে আসছিলো। শেষ পর্যন্ত তিনি ১০ মার্চ দুপুরে ৭-৮ টি পিক-আপ গাড়ি করে জোর পূর্বক আমাদের ৬ শতক জমিতে মাটি ভরাট করে। আমরা কোনো ধরনের দাঙ্গা হাঙ্গামার ও আইন নিজের হাতে তুলে নিতে চাই না বিধায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে মৌলভী সাহাব উদ্দিনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানিয়েছেন রামু থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক কামরুল ইসলাম।

তিনি আরো জানান, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সেখানে টিন দিয়ে ঘেরা দেওয়া হয়েছে। আইন শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে আমি সেখানে গিয়েছি। উভয় পক্ষকে শুক্রবার মিমাংসার জন্য ডাকা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •