ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
টেকনাফের দমদমিয়া চেকপোস্টে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগকারী ব্লাস্ট এনজিওকর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবির করা চাঞ্চল্যকর ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলাটি আমলে নিয়েছেন আদালত।
বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) মামলাটি গ্রহণ করে চার্জ গঠনের জন্য আগামী ১৫ মার্চ ধার্য করেছেন কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক তামান্না ফারাহ।
এর আগে গত ১৪ জানুয়ারি সকালে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে আত্মসমর্পন করেন অভিযুক্ত এনজিওকর্মী ফারজানা আক্তার।
আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তার জামিন আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।
বিজিবির গনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
উল্লেখ্য, গত ৮ অক্টোবর টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ দমদমিয়া চেকপোস্টে অটোরিকশা যাত্রী ব্লাস্ট এনজিও কর্মী ফারজানা আক্তারকে বিজিবির নারী সদস্যরা তল্লাশি করলে পরবর্তীতে সে বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ এনে অপপ্রচার চালায়। এ অপপ্রচারের প্রেক্ষিতে গত ১০ নভেম্বর টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২বিজিবি) কর্তৃক কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফারজানা আক্তারের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ৫০০ ধারায় ১০০ কোটি টাকার মানহানীর মামলা দায়ের করা হয়। গত ২২ নভেম্বর টেকনাফ থানার ওসি (অপারেশনস) ইন্সপেক্টর শরিফুল কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগকারী ব্লাস্ট এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবি’র চাঞ্চল্যকর মানহানি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।
তদন্ত প্রতিবেদনে ধর্ষণের কোন আলামত পাওয়া যায়নি বিধায় গত ২২ নভেম্বর শুনানী শেষে ১৪ জানুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করেন কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাঃ হেলাল উদ্দিন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •