সিবিএন ডেস্ক:
দেশে বর্তমানে দ্বৈত ভোটারের সংখ্যা ৫ লাখ ২৯ হাজার ৮০৬ জন। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) এক সভায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার রাইজিংবিডিকে বলেন, দ্বৈত ভোটারের বিষয়ে এক সভা হয়েছে। সভায় এই সমস্যা সমাধানের জন্য আলোচনা করা হয়েছে। আমরা দ্রুত এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেবো।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাতীয় পরিচয়পত্র, ভোটার তালিকা এবং নির্বাচন ব্যবস্থাপনায় তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ সংক্রান্ত কমিটির সভায় এ বিষয়টি জানানো হয়েছে।

ইসি সূত্র জানায়, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত ভোটার ডাটাবেইজ সার্ভার হতে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে দেশে মোট দ্বৈত ভোটার রয়েছে ৫ লাখ ২৯ হাজার ৮০৬ জন। এছাড়া ম্যাচ ফাউন্ড ভোটার রয়েছে ৬ লাখ ৩৮ হাজার ১৩৯টি। ইসির পক্ষ থেকে প্রথম ধাপে ১ হাজার ৫৭ জনের নামে মামলা করতে মাঠপর্যায়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে গত জানুয়ারি মাস পর্যন্ত ৫৫৬ জন দ্বৈত ভোটারের নামে মামলা করা হয়েছে। বাকি ৫২৭ জনের নামে মামলা অপেক্ষমান রয়েছে।

ইসি থেকে জানা গেছে, সভায় দ্বৈত ভোটারের সমস্যা সমাধানের জন্য কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দ্বৈত ভোটার হওয়ার প্রবণতা রোধে এ সংক্রান্ত কমিটি সুপারিশ করবে। দ্বৈত ভোটারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা সুনিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে আইনি সংস্কার সুপারিশ করবেন। অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে তথ্য গোপন করে অথবা সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য দিয়ে দ্বিতীয়বার ভোটার হয়েছেন। এমন দ্বৈত ভোটার চিহ্নিতকরণ ও তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে মতামত দেবেন।

ইসির দেওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ৬৫ লাখ ৯৮ হাজার ৫ জন। নারী ভোটার ৫ কোটি ৫১ লাখ ২২ হাজার ২২৩ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •