ইমাম খাইর, সিবিএন:

চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সাবেক ছাত্রনেতা হাফেজ এহসানুল হক।

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুরে উপজেলা নির্বাচন অফিসার শহিদুল ইসলামের কাছ থেকে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনয়নপত্র নেন।

এ সময় এহসানের পিতা বৃহত্তর চকরিয়া উপজেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব রেজাউল হকসহ বিভিন্ন পাড়ার সর্দার, এলাকার মান্যগন্য ব্যক্তি ও আত্মীয় স্বজন উপস্থিত ছিলেন।

মনোয়নপত্র সংগ্রহ করে বেরিয়ে শুভানুধ্যায়ীদের উদ্দেশ্যে এহসানুল হক বলেন-নিজের জন্য ভোট করছি না। গণমানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। আমি নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়ন হবে দেখার মতো। সবার দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করছি।

কাউন্সিলর প্রার্থী এহসানুল হক মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রিধারী ব্যক্তি। পড়ালেখাকালে চট্টগ্রাম মহানগরে তিনি রাজনীতি করে বেড়ে উঠেছেন। নিজ এলাকার পাশাপাশি উপজেলার প্রায় এলাকার তার পরিচিতি রয়েছে।

হাফেজ এহসানুল হক চকরিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের বিনামারা এলাকার ঐতিহ্যবাহী মৌলভী পরিবার মরহুম মাওলানা শফিউল আলম নাতি।

তিনি চকরিয়া আন নুর মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, বিনামারা এজাহারুল উলুম দাখিল মাদরাসার সাধারণ সম্পাদক।

ব্যবসায়ীকভাবেও বেশ প্রতিষ্ঠিত। চকরিয়া পাইওনিয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি, লামা উপজেলার ফাইতং বিবিএম ব্রিকস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বে আছেন এহসান।

তার পিতা আলহাজ্ব রেজাউল হক বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগি ও চকরিয়া ‍উপজেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি।

কাউন্সিলর প্রার্থী হাফেজ এহসানুল হকের লক্ষ্য-
১. মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত ডিজিটাল ওয়ার্ড গঠন
২. বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিতকরণ
৩. ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু
৪. গ্রামীণ সালিশী কমিটি গঠন। সুষ্ঠু ও ন্যায় বিচার নিশ্চিতকরণ
৫. গ্রামভিত্তিক ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করা
৬. বেকারত্ব দূরীকরণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি
৭. পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থার মাধ্যমে পয়ঃনিষ্কাশন
৮ নিজ ওয়ার্ডকে মডেল ওয়ার্ডে রূপান্তর।

উল্লেখ্য, ঘোষিত তফসিল মোতাবেক চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন আগামী ১১এপ্রিল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •