cbn  

তারেকুর রহমানঃ
আজও অনেক নারী অনাহারে পেট চেপে আছে, আজও অনেক নারী জীবন সংগ্রামে সংসারের ঘানি টানছে। অনেক নারী নির্যাতনের শিকার হয়ে ভয়ংকর সমাজের আড়ালে কেঁদে মরছে। কিন্তু পাচ্ছে না তাদের ন্যায্য অধিকার, পাচ্ছে না সম্মান।
‘নারী দিবস’ শব্দটি তাদের জন্য একটি হাস্যকর বিনোদনের মাধ্যম মাত্র। নারী দেখলে যারা ঘরের মা-বোনের কথা ভুলে যায় তাদের হাতে নারী দিবসের ব্যানার-ফেস্টুন অবহেলিত নারীদের হাসায়।

দমন-নিপীড়নের আবদ্ধ দেয়াল থেকে নারীরা এখনো বের হতে পারে নি। তাদের দিয়ে প্রতিদিন পুষিয়ে নেয়া হচ্ছে ভারী ভারী কাজ। অসম্মান করা হচ্ছে প্রতি মুহুর্তে। নারীরা পাচ্ছে না ত্যাগ তিতিক্ষার ফল। সারাদিন গাধার মতো খেটে দিনশেষে তাদের চোখে জল।
সন্তান দিচ্ছে না মায়ের অধিকার, স্বামী দিচ্ছে না স্ত্রীর অধিকার এবং ভাই দিচ্ছে না বোনের অধিকার।
অথচ প্রতিবছর ৮ মার্চ আসলেই নারী দিবস উদযাপনের কত প্রস্তুতি, কত আয়োজন; যেন এলাহী কান্ড!
এতো আয়োজনের মধ্য দিয়েও যদি নারীর অধিকার নিশ্চিত না হয় তবে এটি অসফল নারী দিবস।

খবর নিয়ে দেখেন আপনার আশেপাশে- নারীদের কর্মস্থলে কত বেতন বকেয়া আছে। শরীরের মাংস ঝরে যাওয়ার মতো কথা শুনতে হচ্ছে মহাজন কিংবা অফিসের বস থেকে। অথচ সেই মহাজন-বসরাই আজ নারীর অধিকার নিশ্চিতের লক্ষ্যে নারী দিবস পালনের প্রথম কাতারে।

ফুটপাতই শত শত উপোস নারীর শেষ ঠিকানা। তাদের পাশ দিয়ে আবার রাস্তায় র‍্যালী বের করে নারীর অধিকার চায়। এই নারীদের অধিকার আদায়ের জন্য কত ভণ্ড ও অপচয়কারী গলা ফাটায়।

ওহে মুখোশধারীর দল,
আগে তুই নারীর অধিকার দে;
পরে ব্যানার হাতে চল্।

তারেকুর রহমান
স্টাফ রিপোর্টার
দৈনিক আজকের দেশবিদেশ ও সিবিএন
tarekcox01@gmail.com

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •