এম.এ আজিজ রাসেল :
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে আয়োজিত ও বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তিতে আনন্দ উদযাপন করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানা । রবিবার (০৭ মার্চ) বিকালে ট্রাফিক পুলিশের মাঠ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মো. জাকির হোসেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘ঐতিহাসিক ৭ মার্চ বাঙালী-জাতির মুক্তিসংগ্রাম ও স্বাধীনতার ইতিহাসে একটি অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের এ দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে বজ্রকন্ঠে যে কালজয়ী ভাষণ দিয়েছিলেন, তার মধ্যে নিহিত ছিল বাঙালীর মুক্তির ডাক।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিআইডি পুলিশের বিশেষ পুলিশ সুপার মো. ফয়সাল আহমদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম, কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বক্তারা বলেন, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর আজীবনের লালিত স্বপ্ন। মহান এ নেতার সে স্বপ্ন পূরণে আমাদের অব্যাহত প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশকে ২০৪১ সালে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘রূপকল্প-২০২১’ ও ‘রূপকল্প-২০৪১’ ঘোষণা করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর সন্ধিক্ষণে এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নে দলমত-নির্বিশেষে সকলকে নিজ-নিজ অবস্থান থেকে অবদান রাখতে হবে।
সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মুনীর-উল গীয়াসের সভাপতিত্বে ও ১নং বিটের ইনচার্জ এসআই মো. দস্তগির হোসাইনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ওসি (তদন্ত) বিপুল চন্দ্র দে, ওসি (অপারেশন) সেলিম উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজিবুল ইসলাম, খুরুশকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, ঝিলংজা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান, কক্সবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর নারী নেত্রী শাহেনা আক্তার পাখি ও নারী নেত্রী ফাতেমা আনকিজ । এর আগে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ ও ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃতির ভিডিও দেখানো হয়। অনুষ্ঠান শেষে পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •