cbn  

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সরকারের দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি দুইদিনের সফরে কক্সবাজারে অবস্থান করছেন। বিমানযোগে মন্ত্রী শনিবার (৬ মার্চ) বিকেলে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছলে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে স্বাগত জানান কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য এবং চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। এ সময়  কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ উপস্থিত ছিলেন।

এর পর বিকেল চারটার দিকে প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি যোগ দেন কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ হেরিটেজ স্টাডি এন্ড ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন কক্সবাজার জেলা শাখা আয়োজিত কক্সবাজার জেলায় ‘দুর্যোগ মোকাবেলা ও ঐতিহ্য রক্ষায় করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভা ও হেরিটেক কক্স শো’ অনুষ্ঠানে। সেখানে মন্ত্রী এনামুর রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম এমএ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আখতার হোসেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরিন আখতার, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জাকির হোসেন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ, জেলা পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের আঞ্চলিক পরিচালক ড. মো. আতাউর রহমান, ঢাকার বিশিষ্ট সাংবাদিক আসিফ জাহাঙ্গীর। স্বাগত বক্তব্য দেন কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবচার, বাংলাদেশ হেরিটেজ স্টাডি ও ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের মহাসচিব অ্যাডভোকেট ড. শাহিদা খান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ হেরিটেজ স্টাডি ও ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের কক্সবাজার জেলার সভাপতি আ ন ম হেলাল উদ্দিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ বর্তমানে ব্যাপক সক্ষমতা অর্জন করেছে। সরকারের যেসব মন্ত্রণালয় রয়েছে তন্মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষমতা অর্জনে বর্তমানে চার নম্বরে অবস্থান করছে। যা মন্ত্রণালয়গুলোর মধ্যে আগের র‌্যাংকিংয়ে ছিল ২১ নম্বরে। মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সক্ষমতা অর্জনে অনেকদূর যে এগিয়েছে তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ হচ্ছে কক্সবাজারের চকরিয়ার মাতামুহুরী নদীর ভাঙন। বর্ষামৌসুমে সর্বশেষ যে ভয়াবহ বন্যা পরবর্তী মাতামুহুরী নদীর দুই তীরে যে ভাঙন সৃষ্টি হয়েছিল তা সরজমিন পরিদর্শনের পর প্রকল্প হাতে নিয়ে ভাঙন রোধ করা হয়েছে টেকসই বেড়িবাঁধনির্মাণের মাধ্যমে। এছাড়াও যে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার দূরদর্শীতা এবং সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের মধ্য দিয়ে দুর্যোগ মোকাবেলা করে আসছে আমাদের মন্ত্রণালয়।

কক্সবাজারের ঐতিহ্যগুলো সংরক্ষণে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টদের সাথে জরুরীভিত্তিতে আলোচনা করবেন বলেও প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী আশ্বাস প্রদান করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •