ইউসুফ আরমান :

বছরের একটা দিন সবাই প্রাণের আড্ডায় মশগুল হবেন, মিলনমেলায় শামিল হবেন- এমন প্রত্যাশা-প্রাপ্তি সবার থাকে।

আজ ০৫-০৩-২০২১ শক্রবার কক্সবাজার বহুমুখী ব্যবসায়ী সমিতির সকল সদস্যের অংশ গ্রহণে পুরো বনভোজন লোকেশন বর্ণিল হয়ে ওঠে। আনন্দ আর উল্লাস মুখরিত চারদিক। সদস্যদের গান, নাচ, গল্প-আড্ডা, ফটোসেশন, সেলফিতে মুখরিত হয় পুরো আয়োজন।

আনন্দ-আড্ডার মধ্য দিয়ে র‌্যাফেল ড্র সহ নানা রকম আয়োজন ছিল বনভোজনে। কামাল আরমান বলেন, ‘এমন সময় সবাইকে এক করা মানে ঐক্যের দিনগুলো ফিরে পাওয়ার মতো। পাহাড় জুড়ে মন-মাতানো সবুজের সমারোহ পাহাড়ের ছোঁয়ায়।

রাস্তার দু’পাশ জুড়ে সারি সারি গাছগাছালি আর আকাঁবাঁকা পথ অনাবিল আনন্দে ডুব দিয়েছিল সবাই। মনোরম প্রাকৃতিক শোভায় ঘেরা ডুলাহাজারা সাফারী পার্ক।

বনভোজনস্থলে পৌঁছেই অনেকে ছুটে গিয়েছেন প্রকৃতির কাছে, সবুজ অরণ্য আর লেকের পাশে কিছুটা সময় কাটাতে। বনভোজনে অংশ গ্রহণকারীদের প্রতিটি মুহূর্তটা আনন্দে ভরিয়ে দিতে কক্সবাজার বহুমুখী ব্যবসায়ী সমিতিরও যথেষ্ট আয়োজন ছিল। আয়োজনটি হয়ে উঠেছিল সকল বয়সী সমিতির সদস্যদের আনন্দের উৎস।

বিভিন্ন বয়সী ছেলেমেয়েদের জন্য নানা ধরনের খেলাধুলার ব্যবস্থা এবং বয়স্কদের জন্যও আয়োজন ছিল।

সারা দিনের আনন্দ আর উচ্ছ্বাসের পর বিকেলে ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। তার আগে অবশ্য সারা দিনের বিভিন্ন আয়োজনের বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়। পুরস্কার বিতরণ শুরু করেন সাধারণ সম্পাদক। আর র‍্যাফেল ড্রর পুরস্কার বিতরণ করেন সমিতির সকলে মিলে। পুরো অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন আসাদুজ্জামান।

সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি আসাদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দিন ও বনভোজন কমিটির আহ্বায়ক শাহজাহান।

উপস্থিত ছিলেন আসাদুজ্জামান, জিয়া উদ্দিন, শাহাজাহান, সৈয়দ আলম, কামাল আরমান, ফরিদ, কবির সওদাগর, সব্বির মাষ্টার, মোবারক, জব্বর, তাজ উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, নবী হোসেন, মহি উদ্দিন চৌধুরী সহ প্রমুখ।

দিন শেষে ক্লান্তি নয়, যেন উদ্যম আর সতেজতা নিয়ে ঘরে ফিরেন রাত ৮ টার মধ্যে কক্সবাজার বহুমুখী ব্যবসায়ী সমিতি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •