সংবাদদাতাঃ
গত ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ তাহফিজুল কোরআন সংস্থার অধিনে আল জামেয়া ইসলামিয়া পটিয়া মাদ্রাসায় আয়োজিত দেশের প্রায় ৫০০ এর অধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হাজারো অধিক কিশোর ও তরুণ হাফেজদের অংশগ্রহণ করা ৩০ পারা কোরআনের এই প্রতিযোগিতায় কক্সবাজার জেলার মহেশখালীর কৃতি সন্তান হাফেজ আবদুল্লাহ আল মামুন প্রথম স্থান অর্জন করেন।

হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন চট্টগ্রাম নগরীর ১৩, ওআর নিজাম রোড,পাঁচলাইশ থানার পাশে অবস্থিত সুপরিচিত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইক্বরা তাহফিজুল কোরআন চট্টগ্রামের শিক্ষার্থী এবং প্রখ্যাত হাফেজ নেয়ামত উল্লাহর ছাত্র।

সে কক্সবাজার জেলার মহেশখালী থানার অন্তর্গত উত্তর ঝাপুয়া গ্রামের আব্দুল মুনাফের সর্ব কনিষ্ঠ সন্তান।

এই সাফল্যে তার গর্বিত পিতা আব্দুল মুনাফ বলেনঃ আমার ছেলে বড় হয়ে জগৎবিখ্যাত দায়ী হতে চাই, এজন্য আমি দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করছি।

ইক্বরা তাহফিজুল কোরআন চট্টগ্রামের কো-অর্ডিনেটর হাফেজ মাওলানা ছমির উদ্দীন বলেনঃ মামুন খুব বিনয়ী ও মেধাবী ছাত্র, তার এই সফলতায় আমরা সত্যিই গর্বিত ও আনন্দিত।

পরিচালক, হাফেজ মাওলানা মহি উদ্দীন বলেনঃআমাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের আন্তরিকতা ও হাফেজ মামুনের নিরলস প্রচেষ্টার কারনেই এই সফলতা। এরকম ছাত্র দেশ ও জাতির গর্ব।

সেক্রেটারি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজ সেবক আনোয়ার ছিদ্দিক চৌধুরীর বলেনঃ হাজারো অধিক হাফেজদের সাথে প্রতিযোগিতা করে হাফেজ মামুন মেধার যে সাক্ষর রেখেছেন, এতে আমরা সত্যি অভিভূত।এজন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি এবং তার ভবিষ্যৎ সফলতার জন্য দোয়া কামনা করছি।

প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান, দেশের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও আলোকিত সমাজ গড়ার কারিগর মুহাম্মদ মাহফুজুর রহমান বলেন, আমাদের ছাত্র হাফেজ মামুনের এ অভূতপূর্ব সাফল্যে আমি মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছি। ইক্বরা তাহফিজুল কোরআন চট্টগ্রামে একটি ব্যতিক্রমধর্মী ন্যাশনাল ক্যারিক্যুলাম ইংরেজি মাধ্যম আধুনিক হিফয প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইতিমধ্যে স্বীকৃতি লাভ করেছে। চেয়ারম্যান হিসেবে এ সাফল্যের জন্য আমি শিক্ষক ও মা-বাবাকে অভিনন্দন জানাই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •