কালেরকন্ঠ: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) বিভিন্ন বিভাগের চলমান পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন করতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্র-ছাত্রী পরামর্শ ও নির্দেশনা কেন্দ্রের পরিচালক (ছাত্র উপদেষ্টা) অধ্যাপক সিরাজ উদ দৌল্লাহ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতারের মাধ্যমে তিনি এই চিঠি ইস্যু করেন।

চিঠিতে ছাত্র-ছাত্রী পরামর্শ ও নির্দেশনা কেন্দ্রের পরিচালক সিরাজ উদ দৌল্লাহ অভিভাবক হিসেবে অসমাপ্ত পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন করতে শিক্ষামন্ত্রীর সহযোগিতা চেয়েছেন। করোনার কারণে শিক্ষার্থীদের করুণ পরিস্থিতির কথাও বর্ণনা করেন সিরাজ উদ দৌল্লাহ । তিনি এই চিঠি চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারের মাধ্যমে পাঠান। উপাচার্যও চিঠিতে সুপারিশ করেছেন।

চিঠিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষার্থী নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও দরিদ্র পরিবারের সন্তান। করোনা মহামারির কারণে অনেক অভিভাবক আর্থিক সংকটে আছেন। এর প্রভাব শিক্ষার্থীদের ওপর সুস্পষ্ট। একাডেমিক কাউন্সিলের অনুমোদনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্থগিত পরীক্ষাগুলো শুরু হয়ে প্রায় শেষ পর্যায়ে ছিল। গত মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা অনুসারে চলমান পরীক্ষাগুলো স্থগিত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিতে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন ও চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন এলাকায় নিজ খরচে ধার-দেনা করে ঘরভাড়া নিয়েছে। পরীক্ষাগুলো স্থগিত করায় শিক্ষার্থীরা আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

সিরাজ উদ দৌল্লাহ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু বিভাগের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। কিন্তু শিক্ষামন্ত্রীর গত মঙ্গলবারের ঘোষণার পর থেকে স্থগিত করা হয়। এই পরীক্ষাগুলো যাতে আমরা নিতে পারি, সে জন্য আজ দুপুরে মন্ত্রী বরাবর একটি চিঠি মেইল করেছি। আশা করি শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ লাগবে তিনি বিষয়টি বিবেচনা করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •