বলরাম দাশ অনুপম :
শ্রীল নিত্যানন্দ গোস্বামী নয়ন ছিলেন একজন সাদা মনের মানুষ। ছিলেন অসাম্প্রদাযিক চেতনায় বিশ্বাসী। তিনি জীবনের বেশিরভাগ সময়ই অসহায় মানুষের সেবায় কাটিয়েছেন। শুক্রবার রাতে খুরুশকুল পূর্ব হিন্দু পাড়া সার্বজনীন শ্রীশ্রী কালী মন্দির প্রাঙ্গনে আয়োজিত স্মরণ সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন। একই সময় খুরুশকুল ধর্মীয় জাগরণী গীতা শিক্ষা শিক্ষক পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনও অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা আরো বলেন- একজন মানুষ হিসেবে ধর্ম-বর্ণ জাতি নির্বিশেষে সকলকে মানবতার কল্যাণে কাজ করতে হবে। মানবতার সেবার পাশাপাশি আমাদের সকলকে সাহসী হয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ ও মানব সেবা করতে হবে। তাহলেই সৃষ্টিকর্তার নৈকট্য লাভ করা যাবে। খুরুশকুল ধর্মীয় জাগরণী গীতা শিক্ষা শিক্ষক পরিষদের সভাপতি সজীব কান্তি দে-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন খুরুশকুল ধর্মীয় জাগরণী গীতা শিক্ষা শিক্ষক পরিষদের উপদেষ্টা ছোটন কান্তি দে। প্রধান আলোচক ছিলেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি বাবুল শর্মা। প্রধান অতিথি ছিলেন খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন জসিম। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন-সদর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপম, খুরুশকুল ইউনিয়ন পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি মাষ্টার রতন কান্তি দে, সাধারণ সম্পাদক শিবলু পাল, সাবেক সভাপতি অমল কান্তি দে, সার্বজনীন কেন্দ্রীয় কালী মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি অনন্ত মোহন দে, সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার বাবুল দে, অর্থ সম্পাদক বিমল কান্তি দে, সাংবাদিক স্বপন কান্তি দে, কক্সবাজার পৌর পূজা উদ্যাপন পরিষদের দপ্তর সম্পাদক শুভ দাশ। খুরুশকুল ধর্মীয় জাগরণী গীতা শিক্ষা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিমাই রুদ্রের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন, খুরুশকুল ধর্মীয় জাগরণী গীতা শিক্ষা শিক্ষক পরিষদের সহ-সভাপতি প্রকাশ দে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •