cbn  

পেকুয়া প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তের হামলায় প্রবাসীর স্ত্রী ছেলেসহ তিনজন আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার সদর ইউপির আহমদ ডিলার চৌমুহনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতেরা হলেন, বারবাকিয়া ইউপির পূর্ব পাহাড়িয়াখালী এলাকার (সাবেক আহমদ ডিলার চৌমুহনীর বাসিন্দা) বেলাল উদ্দিনের স্ত্রী ছেনুয়ারা বেগম (৪০), তার ছেলে মোঃ আনিছ (২৩) ও শফিকুর রহমানের ছেলে মোঃ মানিক (২৫)। আহত সবাইকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রবাসী বেলালের ছেলে মোঃ মিরাজ বলেন, পেকুয়া সদর আহমদ ডিলার চৌমুহনী এলাকায় ক্রয়সূত্রে প্রাপ্ত জমিতে বসতভিটা করে বসবাস করে আসছিলাম। বিগত কয়েকবছর পূর্বে একই এলাকার মৃত আবদুল হকের ছেলে জাকের হোসেন গং বসতভিটায় আগুন লাগিয়ে সম্পূর্ণ পুড়িয়ে দেয়। এরপরও ভিটায় আমরা বসবাস করার চেষ্টা করলে আমাদের হুমকি দিতে থাকে। সর্বশেষ আমরা বারবাকিয়ার পাহাড়িয়াখালীতে গিয়ে বসবাস শুরু করি। ওই জায়গা নিয়ে জাকের গং তারপরও বিরোধ করলে স্থানীয় আবু তালেব, আইজুল হক ও বশির সাহেব বরাবর অভিযোগ দায়ের করি। বেশ কয়েকদফার বৈঠকে বসতভিটার জমি আমাদের প্রতিয়মান হলে নতুনভাবে বসতভিটা তৈরি করার নির্দেশ প্রদান করেন।

মৌখিকভাবে আমাদেরকে রায় প্রদান করলে আজ বসতঘর তৈরি করতে গেলে জাকের হোসেনের তার ভাই আমিন, ফরিদ, ইসলাম মিয়ার ছেলে আনিক ও আমিনের ছেলে শরীফসহ আরো বেশ কয়েকজন সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালায়। তাদের উপর্যোপুরী হামলায় আমার মা, ভাইসহ তিনজন আহত হয়। এমনকি তাদেরকে আহত করার পর চিকিৎসা নিতে আসতে পর্যন্ত দিচ্ছিলেন না। সর্বশেষ স্থানীয়দের সহযোগিতায় আমরা আহতদেরকে হাসপাতালে নিয়ে আসি। তার মধ্যে মায়ের অবস্থা খুব গুরুতর অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনায় আমরা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •