মিজানুর রহমান :

কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভব্য প্রার্থী হওয়ার মতবিনিময় সভার বিরোধের জের ধরে আব্দুল মোতালেব (৪৫) নামের এক ইউপি সদস্যের বাড়ীতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় হামলাকারীরা বসত ঘরে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। এ ঘটনায় ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আলী আকবর ডেইল ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মোতালেবসহ ৬ জন আহত হয়েছে।  মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে ৫নং ওয়ার্ড সুন্ধীপাড়া গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, ওই এলাকার নজর আলীর ছেলে ইউপি সদস্য মোতালেব (৪৫) তার ভাই আব্দু রহিম (৩৫), ভাইয়ের বউ শারমিন আক্তার (৩৫) এবং তার মা নুর জাহান (৬০) , তার বোন ধলু বিবি ও তার ছেলে মেহেদী হাসান বাপ্পীসহ পরিবারের ৬ জনকে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে কুতুবদিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মধ্যে ৪জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠিয়েছে।

আহত মেহেদী হাসান বাপ্পি বলেন, উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের পূর্ব আলী আকবর ডেইল গ্রামের ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য আবদুল মোতালেবের পরিবারের সঙ্গে একই এলাকার জাহেদ খানের পরিবারের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিলো। কদিন আগে আগামী ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে দুপক্ষই একইদিন পারিবারিক বৈঠককে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। তার জের ধরে মঙ্গলবার সকাল ১১টা দিকে জাহেদ খানের লোকজন পরিকল্পিত ভাবে আবদুল মোতালেবের বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায়।

আলী আকবর ডেইল ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুচছাফা বলেন, ইউপি নির্বাচনের মতবিনিময় সভাকে কেন্দ্র করে বিএনপিপন্থিরা আ‘লীগ নেতা ইউপি সদস্যের বাড়ি ঘেরাও করে মারপিট করে কয়েকজনকে মারাত্মক আহত করে। তারা এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সুষ্ঠ তদন্ত ও সন্ত্রাসীদের আটক করে আইনের আওতায় এনে দোষীদের শাস্তির দাবি জানান।

কুতুবদিয়া থানার ওসি মোঃ জালাল উদ্দীন বলেন মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালে আহতদের খোঁজখবর নিয়েছেন। এব্যাপারে ইউপি সদস্য আব্দুল মোতারের ভাই আব্দুল খালেক বাদী হয়ে এজাহার দিয়েছেন। এটি মামলা রুজু করে দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •