ফারুক আহমদ , উখিয়া :
উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী নুরুল আলমের স্ত্রী নাসিমা আকতার (২৩) ৩ ধরে নিখোঁজ রয়েছে। প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজের ঘটনা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ।
উখিয়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আবদুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ প্রবাসীর স্ত্রীকে হন্য হয়ে সম্ভাব্য স্থানে খুঁজছেন। তবে কোট বাজার স্টেশনের অরজিন হাসপাতালের নিচে একটি সিসি ক্যামেরার ৭ মিনিটের ফুটেজ ওই গৃহবধূর একজন যুবকের সাথে সিএনজিযোগে চলে যাওয়ার দৃশ্য নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে ।
জানা যায়, জালিয়া পালং ইউনিয়নের জুম্মা পাড়া গ্রামের হাজি আনু মিয়ার ছেলে নুরুল আলমের (৩৫) সাথে রাজা পালং গ্রামের আজিজুর রহমানের কন্যা নাসিমা আকতারের মধ্যে সামাজিক ভাবে বিবাহ হয়। তাদের ৯ বছরের সংসারে ৭ বছরের নিশুমনি নামের একজন কন্যা সন্তান রয়েছে ।
গ্রামবাসীরা জানান, নুরুল আলম বিগত ১৫ বছর ধরে সৌদি আরবে প্রবাসজীবন অতিবাহিত করে আসছে।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ ফেব্রুয়ারি বাপের বাড়ি যাবার কথা বলে গৃহবধূ টমটম যোগে শশুর বাড়ি থেকে রওনা দেয়।
দেবর মনজুর আলম জানিয়েছেন , সেই দিন বিকেলে খবর আসে সে বাপের বাড়ি যায়নি। তিনি আরও বলেন বড় ভাই নুরুল আলম বর্তমানে সৌদি আরবে অবস্থান করার সুযোগে তার স্ত্রী নাসিমা বাড়ি থেকে স্বর্ণ অলংকার টাকাপয়সা ও মূল্যবান কাপড়চোপড় সহ সবকিছু নিয়ে গেছে। শুধু তাই একমাত্র শিশু কন্যাকে একদিন আগে নানার বাড়িতে পৌঁছে দেয়।
টমটম চালকের ভায্য গৃহবধূ সেইদিন বাপের বাড়িতে না গিয়ে কোটবাজার পেট্রোলপাম সংলগ্ন অরজিন হাসপাতালে চিকিৎসার কথা বলে নেমে যান। এদিকে টমটম চালকের ভায্য অনুযায়ী বাপের বাড়ি ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন যৌথ ভাবে রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারি অরজিম হাসপাতালের নিচে বসানো সিসি ক্যামরার ৭ মিনিটের ফুটেজ সংগ্রহ করেন। উক্ত ফুটেজে দেখা যায়, প্রবাসীর স্ত্রী মোবাইল ফোনে কার সাথে একাধিক বার কথা বলতে। একটুপর গেঞ্জি পরা এক যুবক এসে ব্যাগেজ ও ল্যাগেজ গুলো হাতে নেন এনং দু জন সিএনজি তে উঠে । পাশের আরেকটি সিসি ক্যামেরায় দেখা গেছে, সিএনজিটি কোটবাজার স্টেশন হয়ে উত্তর দিকে চলে যায়। স্থানীয় সিএনজির ড্রাইভার গণ জানান গাড়িটি রামু এলাকার।
প্রবাসী নূরুল আলম মোবাইল ফোনে বলেন, পানির ছড়ার ভারুয়াখালী এলাকার মোহাম্মদ হোসনের সাথে সৌদি আরবে একসাথে কাজ করতে গিয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ক হয়। সেই সুবাদে দু পরিবারের সদস্যরা একে অপরের বাড়িতে দাওয়াতে বেড়াতে যায়। তিনি আরও বলেন , মোহাম্মদ হোসনের ছেলে জাকারিয়া আমার বাড়িতে বেড়াতে যায় কিছু দিন আগে। সেই থেকে আমার স্ত্রী নাসিমা তার সাথে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা মোবাইলে কথা বলতে থাকে এমন অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের। সকলের অভিমত পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে জাকারিয়ার হাতধরে প্রবাসীর স্ত্রী নাসিমা পালিয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। থানার ডিউটি অফিসার জানান, প্রবাসীর স্ত্রীর নিখোঁজ বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •