প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
সুন্দরবন বাঁচা বাংলাদেশ বাঁচাও শ্লোগানকে সামনে রেখে সুন্দরবনকে বাঁচাতে কক্সবাজার পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। রবিবার (১৪ই ফ্রেরুয়ারী) সন্ধ্যায় হেমন্তিকা কার্যালয়ে বাপা’র সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ এম নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী।

বাপা’র কক্সবাজার জেলা সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী বলেন, আজ সুন্দরবন দিবস। এটি প্রতিষ্টিত হয়েছিল ২০০১ সালে। যদিও আমরা সংখ্যায় তারপরে আমাদের এি কার্যক্রম চালিয়ে যাবো। কিছুদিন আগে সুন্দরবন পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। বন্যপ্রাণী তেমন চোখে পড়েনি। পাখির কলরব নেই। নদীতে মাছ নেই।
গাছ কাটা হয়েছে। যা ভয়াবহ অবস্থা। এইভাবে চলতে থাকলে সুন্দরবন অচিরেই বিলুপ্ত হয়ে যাবে।
এদিকে সুন্দরবনের মতো কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ভয়াবহ বিপদে রয়েছে। সুন্দরবন রক্ষায় আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। তার পাশাপাশি সমুদ্র সৈকত, কোহেলিয়া নদী, বাঁকখালী নদী রক্ষায় আমাদের এগিয়ে আসতে হবে। কক্সবাজার থেকে পরিবেশ রক্ষায় বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।শীগ্রই চকরিয়া সুন্দরবন সিমানা নির্ধারণ করে প্রশাসেন মাধ্যমে উদ্ধারে কাজ শুরু করবো সকলকে নিয়ে। আশা করছি স্থানীয় প্রশাসন আমাদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন।

সভায় অন্যান্য বক্তারা বলেন, সুন্দরবন হুমকীর মুখে। দিন দিন সুন্দরবনের সৌন্দর্য নষ্ট করে ফেলছে কিছু কুচক্রী মহল। সুন্দরবন বাংলাদেশের অহঙ্কার। সুন্দরবনের নদীতে বিষ দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে।
কিছু মানুষ হরিণসহ বন্য প্রাণী মেরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাচার করছে। এটি আমাদের প্রতিহত করতে হবে। অন্যদিকে সুন্দরবনের মতো কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বেহাল অবস্থা। দখল হয়ে যাচ্ছে সৈকত নগরী। যার পেছনে কাজ করছে আমলা ও নেতারা। তাদের প্রহত করতে আমাদের চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।
আমাদের পরিবেশবাদীরা প্রাণ দিবো। তারপরেও পরিবেশ ধ্বংস হতে দিবো না।
সভায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সহসভাপতি মোঃ নেজাম উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদ কলিম উল্লাহ কলিম, অর্থ সম্পাদক সমীর পাল, দপ্তর সম্পাদক দোলন ধর, আপ্যায়ন সম্পাদক ফাতেমা আক্তার শাহী, প্রচার সম্পাদক আজিজ রাসেল, বাপা’র শহর সভাপতি কফিল উদ্দিন।
আরো বক্তব্য রাখেন, সাংস্কৃতিক কর্মী অনিল দত্ত, সিপিবি নেতা নুর মোহাম্মদ, কক্সিয়ান এক্সপ্রেস এর তারেক হায়দার,কক্সবাজার নাগরিক আন্দোলন এর ফয়সাল রিয়াদ, ক্লাইমেট জাস্টিস ইয়ূর্থ নেট জিমরান মোঃ সায়েক, সুজন দাশ প্রমূখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •