cbn  

বলরাম দাশ অনুপম :
নৈতিক শিক্ষার পাশাপাশি ধর্মীয় শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। তাই আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে নৈতিক শিক্ষার পাশাপাশি স্ব স্ব ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হবে। ধর্মের সঠিক শিক্ষাকে যদি কাজে লাগানো যায় তাহলে একজন পরিপূর্ণ মানুষ হওয়া যায়। আর এজন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে মায়েদের। খুরুশকুল শীলপাড়া শ্রীশ্রী হরিমন্দির প্রাঙ্গণে প্রবাসী যুব সমাজ উন্নয়ন কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত মাতৃ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রনজিত দাশ উপরোক্ত কথা বলেন।

উক্ত মাতৃ সম্মেলনে উদ্বোধকের বক্তব্যে জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ট্রাস্টি অধ্যাপক প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন বলেন, ছেলে-মেয়েদের ধর্মের শিক্ষায় শিক্ষিত করতে পারলে তাহলেই তারা সঠিক জীবন গড়ে তুলতে পারবে। এতে ধর্মীয় আলোচক ছিলেন, রাধা দামোদর মন্দিরের (ইস্কন) অধ্যক্ষ রাধা গোবিন্দ দাস ব্রহ্মচারী ও শ্রীশ্রী কৃষ্ণানন্দধামের প্রধান সেবায়েত অপু কৃষ্ণ দাশ। যুব উদ্যোগে মানব কল্যাণ পরিষদ ও শীল পাড়া গীতা স্কুল পরিচালনা কমিটির সহযোগিতায় ও তরুন সমাজ সেবক সেন্টু শীলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন-কক্সবাজার পৌর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জনি ধর, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান আইনজীবি ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব এডভোকেট বাপ্পি শর্মা, সদর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপম, জেলা হিন্দু মহাজোটের সভাপতি মিটন কান্তি দাশ মিন্টু, খুরুশকুল ইউনিয়ন পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি মাষ্টার রতন কান্তি দে, যুব উদ্যোগে মানব কল্যাণ পরিষদের সভাপতি সুজন শর্মা, সিনিয়র
সহ-সভাপতি প্রীতম ধর, অর্থ সম্পাদক রনি দাশ, শঙ্খ সংগঠনের সভাপতি টনি দাশ, সাধারণ সম্পাদক শায়ন্ত পাল, শীলপাড়া সমাজ ও শশ্মান পরিচালনা কমিটির
সভাপতি অনিল শীল, সাবেক সভাপতি ডা. নারায়ন শীল, সাবেক সভাপতি মৃদুল শীল, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নিরঞ্জন শীল। গীতা স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি নয়ন শীলের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন, রুপন কান্তি শীল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •