সিবিএন ডেস্ক :

টেকনোলজিস্টদের নার্স হিসেবে নিবন্ধন বন্ধসহ তিন দফা দাবিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে ১৪ থেকে ১৬ ফেব্রুয়ারি তিনদিন কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে নবগঠিত নার্স মিডওয়াইফ সম্মিলিত পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখা।

শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) নার্স ও মিডওয়াইফ সম্মিলিত পরিষদ আজ কক্সবাজার শহীদ মিনারে বিকাল ৩টায় আয়োজিত এক নীতি নির্ধারণী সভায় এ ঘোষণা দেওয়া হয়।
কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশহিসেবে আগামীকাল কক্সবাজার শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে কালোব্যাজ ধারণের পাশাপাশি মানববন্ধন করবেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, এ সময়ের মধ্যে তাঁদের তিন দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। দেশের জন্য স্বাস্থ্য ও নার্সিং পেশার মান রক্ষায় সৃষ্ট পরিস্থিতির দায়ভার বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিল এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে বহন করতে হবে।

তাঁরা আরও বলেন, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের সব শর্ত পূরণ করে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের মতো প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে নার্সিং কোর্সে অধ্যয়নের সুযোগ পায়। পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাই কাউন্সিলের কম্প্রিহেনসিভ দায়িত্ব পালনের বৈধ নার্স হিসেবে বিবেচিত হয়। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ পরিতাপের বিষয় হলো জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি স্বতন্ত্র পেশা হিসেবে প্রচলিত হলেও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে চতুরতার মাধ্যমে নার্সিং শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। এতে দেশের জনগণকে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে নার্সিং শিক্ষা ও সার্ভিসের মান বিনষ্ট হচ্ছে।

এ সময় বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিলের নির্ধারিত ব্যাচেলর অব সায়েন্স ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স অ্যান্ড মিডওয়াইফারি এবং ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি শিক্ষার্থীদের গত ৫ ফেব্রুয়ারির নির্ধারিত কম্প্রিহেনসিভ পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করায় তীব্র প্রতিবাদ জানান নার্স নেতরা।

নার্সেস সংগ্রাম পরিষদের দাবিগুলো হলো-
১. টেকনোলজিস্টদের নার্স হিসেবে নিবন্ধন দেয়া যাবে না,
২.পরিবার কল্যাণ পরিদর্শকদের ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি সমমান করা যাবে না
৩. গত ৫ ফেব্রুয়ারি ব্যাচেলর অব নার্সিং সায়েন্স, ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স অ্যান্ড মিডওয়াইফারি ও ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি ছাত্র-ছাত্রীদের নির্ধারিত কম্প্রিহেনসিভ লাইসেন্সিং পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে অবিলম্বে কম্প্রিহেনসিভ লাইসেন্স পরীক্ষার ব্যবস্থা করা।

নার্সেস সংগ্রাম পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখা আহ্বায়ক কানেতা মনি সভাপতিত্বে সদস্য সচিব নিশি চৌধুরী সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন , স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন কক্সবাজার জেলা শাখা সভাপতি দৌলতুন্নেছা ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •