cbn  

সিবিএন ডেস্ক:
প্রেসিডেন্ট অফিস ত্যাগ করার পর তার বিচার করা যায় কি না এমন প্রশ্ন দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঐতিহাসিক অভিসংশন বিচার শুরু হচ্ছে। ট্রাম্পের উসকানিতে ক্যাপিটল হিলে হামলা হয়েছে এমন অভিযোগে তার বিচার শুরু হতে যাচ্ছে।

গত ৬ জানুয়ারি ট্রাম্প এক অগ্নিঝরা বক্তব্য দেয়ার পর তার শত শত সমর্থক কংগ্রেস ভবনে তাণ্ডব চালায়। ওই বক্তব্যে তিনি গত বছরের ৩ নভেম্বরে ব্যাপক ভোট কারচুপির মাধ্যমে তাকে পরাজিত করা হয়েছে বলে দাবি করেন। সমর্থকদের তিনি নরকের মতো লড়াই করার আহ্বান জানান। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে নজিরবিহীন ওই ঘটনায় ট্রাম্প সমর্থকরা পুলিশের ওপর আক্রমণ করে , আইনপ্রণেতারা নিরাপত্তার জন্য টেবিলের নিচে হামাগুড়ি দেন এবং প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনকে আনুষ্ঠানিক প্রত্যয়ন করার সভা বিলম্বিত হয়। ওই তাণ্ডবে এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ পাঁচজন নিহত হন।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার ট্রাম্পের বিচার শুরু হওয়ার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সিনেটে চতুর্থ অভিসংশনের বিচার হতে যাচ্ছে। কিন্তু ট্রাম্পই একমাত্র ব্যক্তি যিনি হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভদের দ্বারা দুইবার অভিসংশিত হয়েছেন।

ট্রাম্পের কোলাহলপূর্ণ প্রেসিডেন্সির পর সিনেটের বিচার রিপাবলিকান পার্টিকে নতুন দিক নির্দেশনা দিতে পারে। ট্রাম্পের বিচারকে সামনে রেখে ট্রাম্প অনুগত এবং পার্টিকে যারা নতুন পথে নিতে চান তাদের মধ্যে তীব্র বিভাজন ফুটে উঠেছে।

প্রেসিডেন্ট অফিস ত্যাগ করার পর তার অভিসংশনের বিচার সংবিধান অনুমোদন করে কি না এমন প্রশ্ন রেখে ট্রাম্পের আইনজীবীরা বিচার প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়ার পরিকল্পনা করছেন।

সিনেটের অধিকাংশ রিপাবলিকান যুক্তি দিচ্ছে ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পকে দোষী করতে ১০০ সদস্যের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে সক্ষম হবে না। তবে ডেমোক্র্যাট এবং অনেক বিশেষজ্ঞ রিপাবলিকানদের সংবিধান নিয়ে ব্যাখা নাকচ করে দিয়েছেন।

সিনেটের ডেমোক্র্যাটরা প্রত্যাশা করছেন, ট্রাম্পের বিচারের সাংবিধানিকতার বিষয়ে মঙ্গলবার তারা বিজয়ী হবেন। এর আগে গত মাসে বিচার বন্ধের প্রচেষ্টা ৫৫-৪৫ ভোটে পরাজিত হয়। যুক্তরাষ্ট্রের অভিসংশন বিষয়ের একজন বিশেষজ্ঞ ট্রাম্পের আইনজীবীদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ট্রাম্পের আইনজীবী টিম তার কর্মকাণ্ডকে খুব বাজেভাবে বিকৃতি করছে।

ট্রাম্পের মামলাটি ডেমোক্র্যাটদের নয় সদস্য বিশিষ্ট অভিসংশন ম্যানেজার পরিচালনা করবেন। ভোট কারচুপির মাধ্যমে প্রেসিডেন্টশিয়াল নির্বাচন চুরি করা হয়েছে এমন মিথ্যা দাবি করে সহিংসতা চালিয়ে ট্রাম্প দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বলে তারা ইতিমধ্যে অভিযোগ তুলেছে।

হাউস ম্যানেজাররা চলতি মাসের শুরুতে লেখেন, ট্রাম্প অজনপ্রিয় রাজনৈতিক মতামত দিয়েছে বলে হাউস তাকে অভিসংশিত করেনি। হাউস তাকে অভিসংশিত করেছে কারণ তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে সরকারের বিরুদ্ধে সহিংসতা উসকে দিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •