নগরীসহ ১৪ উপজেলার জন্য এসেছে ৪ লাখ ৫৬ হাজার টিকা

তাওহীদুল ইসলাম নূরী:
চট্টগ্রাম জেলার ইপিআই স্টোর থেকে ১৪ টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোল্ড স্টোরেজে করোনার ভ্যাকসিন পৌঁছেছে।

আজ জুমাবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকেই পৃথকভাবে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে ভ্যাকসিনগুলো পৃথক পরিবহনে ১৪ টি উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। দুপুরের পরপরই সব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এগুলো পৌঁছে যায় বলে জানা গেছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, উপজেলাগুলোতে আগামী রোববার টিকাদান কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে।

চট্টগ্রাম নগরীসহ জেলার জন্য ইতোমধ্যে ৪ লাখ ৫৬ হাজার ডোজ টিকা এসেছে। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ইপিআই কোল্ড রুমে ওয়ার্ক ইন কুলারে এই ডোজ সংরক্ষণ করা হয়েছে।
টিকা বরাদ্দ আসার পর দিনই নগরীসহ উপজেলার জন্য পৃথকভাবে বণ্টনের তালিকা করা হয়।

নগরীর ১৫ টি কেন্দ্রের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৯০৫ ডোজ ভ্যাকসিন। বাকি ৩ লাখ ১ হাজার ৯৫ ডোজ টিকা দেয়া হবে ১৪ টি উপজেলায়।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ি উপজেলাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ডোজ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে পটিয়ায়। এ উপজেলায় দেয়া হয়েছে সাড়ে ৩১ হাজারের বেশি ভ্যাকসিন ডোজ।

এছাড়া আনোয়ারা উপজেলায় ১৫ হাজার ৫২৪ ডোজ, বাঁশখালীতে ২৫ হাজার ৮৪১ ডোজ, বোয়ালখালীতে ১৩ হাজার ৩৭২ ডোজ, চন্দনাইশ উপজেলায় ১৩ হাজার ৯৬৫ ডোজ, ফটিকছড়িতে ৩১ হাজার ৫২৫ ডোজ, হাটহাজারীতে ২৫ হাজার ৮৭৬ ডোজ, লোহাগাড়ায় ১৬ হাজার ৭৭৬ ডোজ, মিরসরাই উপজেলায় ২৩ হাজার ৮৯৬ ডোজ, রাঙ্গুনিয়ায় ২০ হাজার ৩১৭ ডোজ, রাউজানে ১৯ হাজার ৩৪৯ ডোজ, সন্দ্বীপ উপজেলায় ১৬ হাজার ৬৯৭ ডোজ, সাতকানিয়াতে ২৩ হাজার ৬২ ডোজ, সীতাকুন্ডে ২৩ হাজার ২৪৪ ডোজ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •