সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
উখিয়ার গয়ালমারা ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদের দুইদিন ব্যাপী তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে মুফাসসীরে কোরআন প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা শফিউল হক জিহাদী বলেন, কোরআন শরীফ আল্লাহর পক্ষ থেকে ব্যবস্থাপত্র।
এই ব্যবস্থা পত্র মত দেশ -সমাজ, পরিবার ও ব্যক্তি জীবন পরিচালিত হলে সমাজের কোথাও সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও অশান্তি থাকবে না।
একইভাবে সমাজের শাসকরা নামাজি হলে গোটা সমাজ নামাজি হতে বাধ্য। নামাজিরা অন্যান্য অপরাধ থেকে বেঁচে থাকতে পারে।
তিনি বলেন, সমাজের মানুষকে নামাজি বানানোর ব্যাপারে সমাজের শাসকদের দায়িত্ব রয়েছে।
১ ফেব্রুয়ারি মাহফিলের প্রথম দিনে আলোচনা করেন প্রভাষক মাওলানা আবুল ফজল, মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম।
সমাজসেবক আন্দুল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রথম দিনের শেষ অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন- রত্মাপালং ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল কবির চৌধুরী, সাংবাদিক শামসুল হক শারেক, সাবেক মেম্বার মাহমুদুল হক চৌধুরী, মাওলামা আব্দুল হাকিম খান, আব্দুর রহিম চৌধুরী, সমাজ সেবক সৈয়দ হোসাইন চৌধুরী, গয়ালমারা দাখিল মাদরাসার সুপার দিল মোহাম্মদ, মাহফিলের আয়োজক কমিটির সভাপাতি শামসুল আলম ভুট্টো।
গত ১৫ বছর ধরে এই মাহফিল চলে আসছে। এই মাহফিল এলাকায় ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে।
মাদক, সন্ত্রাস এবং চুরি-ডাকাতি থেকে এলাকার যুবকদের বিরত রাখার জন্য এই ধরনের উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়।
মাহফিলের সমাপনী দিবসে তাফসীর পেশ করনেন দেশ বরেণ্য ওলামায়ে কেরাম ও মুফাসসীরিনবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •