এম.কলিম উল্লাহ
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ গণমানুষের মুক্তির লক্ষ্যে রাজনীতি করেন বলে মন্তব্য করেছেন, আন্দোলনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান। কক্সবাজারে হোটেল মিশুক এর কনফারেন্স রুমে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলা শাখার শুরা অধিবেশনে তিনি এই মন্তব্য করেন।
গতকাল ৩১ জানুয়ারি (রবিবার) কক্সবাজারে ইসলামী আন্দোলন এর জেলা কমিটি পুনর্গঠনে শুরা অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে মাওলানা মোহাম্মদ আলী পুনরায় জেলা সভাপতি ও মাওলানা মোহাম্মদ শোয়াইব জেলা সেক্রেটারী নির্বাচিত হন।
জেলা সেক্রেটারী মাওলানা মোহাম্মদ শোয়াইব এর সঞ্চালনায়, জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওলানা ফরিদুল আলমের দরসে কুরআন এর মাধ্যমে শুরা অধিবেশন শুরু হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন আন্দোলনের জেলা সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ আলী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে একটি অভিষ্ঠ লক্ষ্যকে সামনে রেখে তার কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে দেশের শান্তিপ্রিয় মানুষের মুক্তির ঠিকানায় পরিণত হয়েছে। দেশের মানুষকে কাংঙ্খিত মুক্তি ও গণমানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সকল নেতাকর্মীরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের এই জেলা শুরা অধিবেশন। কক্সবাজার জেলার সকল মানুষের কাছে ইসলামী বিপ্লবের দাওয়াত পৌঁছে দেয়ার জন্য আজকের এই শুরা একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে।
বিশেষ অতিথির আলোচনা পেশ করেন, আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা খলিলুর রহমান।
অধিবেশনের শেষ পর্যায়ে শুরা সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে প্রধান অতিথি বিগত সেশনের কমিটি বিলুপ্ত করে আগামী ২০২১-২২ সেশনের জন্য মাওলানা মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি ও মাওলানা মোহাম্মদ শোয়াইব কে সেক্রেটারী করে কক্সবাজার জেলা কমিটি ঘোষণা করেন।
প্রধান অতিথির মুনাজাতের মাধ্যমে দেশ জতির কল্যাণ কামনা করে শুরা অধিবেশন সমাপ্ত হয়।
শুরা অধিবেশনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আন্দোলনের জেলা সহ-সভাপতি মাওলানা আবুল হাশেম, আন্দোলনের জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক রাশেদ আনোয়ার, মুজাহিদ কমিটির জেলা সদর আলহাজ্ব নুরুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহিম, আন্দোলনের জেলা প্রচার সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন শাওন, অর্থ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মোঃ ইসমাইল, ইসলামী যুব আন্দোলন এর জেলা সভাপতি মুফতী ওসমান আল হুমাম, জাতীয় শিক্ষক ফোরামের জেলা সাধারণ সম্পাদক মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম, ছাত্র আন্দোলনের জেলা সভাপতি মোরশেদ কারীমীসহ শুরা সদস্যবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •