অনলাইন ডেস্ক : রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, যমুনা নদীর ওপর দিয়ে বঙ্গবন্ধু দ্বিতীয় রেল সেতু এবং ঈশ্বরদী-জয়দেবপুর পর্যন্ত ডাবল রেল লাইনের কাজ শেষ হলেই ঈশ্বরদী থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত সরাসরি ট্রেন চালু করা হবে। রেলওয়েতে লোকবল সংকট আছে। পর্যায়ক্রমে এগুলো পূরণ করা হবে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে রেলওয়ের সমস্ত সমস্যার সমাধান করা হবে।

আজ শুক্রবার দুপুরে রেলের চলমান উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকা থেকে খুলনা-মংলা বন্দর প্রকল্পে যাওয়ার পথে ঈশ্বরদী স্টেশনে বিরতীকালে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের সমস্ত ট্রেন ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশন হয়ে ঢাকা যায়। প্রতিদিন বিয়াল্লিশটি ট্রেন বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে চলাচল করে। সিঙ্গেল লাইন হওয়ায় এবং দ্বিতীয় রেলসেতু না থাকায় বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর বেশি লোড পড়ছে। ঈশ্বরদী বাইপাস থেকে ঢাকার টঙ্গী পর্যন্ত সিঙ্গেল লাইন হওয়ায় ট্রেনের সময় বিপর্যয় হচ্ছে। এই কারণে চাহিদা থাকার সত্ত্বেও এই রুটে নতুন করে আরো ট্রেন চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। যমুনা নদীর ওপর দ্বিতীয় রেলসেতু নির্মাণ কাজ শেষ হলে নতুন ট্রেনের চাহিদা কিছুটা পূরণ করা সম্ভব হবে।

এ সময় রেলমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে ট্রেনে ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম রেজা, অতিরিক্ত মহা-পরিচালক (অপারেশন) সরদার শাহাদাৎ আলী, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী আল ফাত্তাহ মো. মাসউদূর রহমান, পাকশি বিভাগীয় রেলওয়ের পরিবহন কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন, বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ফুয়াদ হোসেন আনন্দ, বিভাগীয় প্রকৌশলী-১ বীরবল মণ্ডল,বিভাগীয় যান্ত্রীক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) মমতাজুল ইসলাম সোহান প্রমুখ।
-কলেরকন্ঠ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •