সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :

প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও শিক্ষক আলহাজ্ব মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ খালেদের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী  ২২ জানুয়ারি। ২০১৯ সালে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

সাইফুল্লাহ খালেদ ছাত্র ইউনিয়নে যোগদানের মাধ্যমে তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন। পরে তিনি অনেকদিন ন্যাপ (ভাষাণী) কক্সবাজার জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭০-৭১ সালে তিনি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে সংগঠক হিসেবে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। প্রতিষ্ঠা কালে তিনি বিএনপিতে যোগদান করে কুতুবদিয়া থানা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরে তিনি দীর্ঘদিন কক্সবাজার জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। একজন সৎ ও গণমুখি রাজনীতিক হিসাবে তিনি আমৃত্যু পরিচিত মহলে বিশেষ সমাদৃত ছিলেন। নীতি ও আদর্শের প্রশ্নে জীবনে তিনি কোনদিন আপস করেননি। আলোকদীপ্ত সমাজ গঠন তাঁর বিশেষ লক্ষ ছিলেন।

মরহুম সাইফুল্লাহ খালেদ পেশাগত জীবনে ছিলেন একজন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্বনাম খ্যাত শিক্ষক। মহেশখালী, পেকুয়া ও কুতুবদিয়ার বিভিন্ন বিদ্যালয়ে তিনি প্রায় চার দশক অত্যন্ত যশ ও সুনামের সাথে শিক্ষকতা করেন। শিক্ষক হিসেবেও তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় ও সম্মানীত ছিলেন। দীর্ঘকাল শিক্ষকতা শেষে তিনি ২০০৫ সালে কুতুবদিয়া ধুরুং আদর্শ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে অবসর গ্রহণ করেন।

সাইফুল্লাহ খালেদের আত্মার শান্তির জন্যে সকলের আন্তরিক দোয়া কামনা করেছেন তার পাঁচ পুত্র ও পরিবারবর্গ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •