ছোটন কান্তি নাথ :
কক্সবাজারের পেকুয়ার কবির আহমদ চৌধুরী বাজারের সরকারীভাবে শেড নির্মাণ তথা তিন তলা ভবন নির্মাণের জন্য উচ্ছেদ হওয়া প্রায় দুই শতাধিক হকারকে ক্ষতিপূরণসহ পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে সরকারীভাবে। এই লক্ষে আজ বৃহস্পতিবার পেকুয়া বাজারের সর্বস্তরের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও ক্ষতিগ্রস্ত হকারদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। প্রধান অতিথি হিসেবে এ সময় এমপি জাফর আলম উচ্ছেদের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হকারদের পুনর্বাসনসহ ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য প্রাথমিকভাবে ১০ লক্ষ টাকা প্রদানের ঘোষণা দেন।
মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মোতাচ্ছেম বিল্যাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, পেকুয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিকি মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, পেকুয়া বাজার দোকান-মালিক সমিতির চেয়ারম্যান ও পেকুয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার মো. ইসমাইল সিকদারসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।
পেকুয়া বাজার দোকান-মালিক সমিতির চেয়ারম্যান ও পেকুয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো. ইসমাইল সিকদার জানান, পেকুয়া কবির আহমদ চৌধুরী বাজারের তিন তলা বিশিষ্ট ভবন বা বাজার শেড নির্মাণের জন্য ৩ কোটি ৮১ লক্ষ টাকার সরকারীভাবে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যে স্থানে বাজার শেডটি নির্মাণ করা হবে সেখানে ক্ষুদ্র ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করতো বিভিন্ন পণ্যের ভাসমান প্রায় দুই শতাধিক ব্যবসায়ী। কিন্তু শেড নির্মাণের কারণে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদেরকে ইতোমধ্যে উচ্ছেদ করে দেওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে কষ্টে দিনাতিপাত করছেন। এনিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হলে আদালত স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাকে নোটিশ দেন এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের। কিন্তু প্রশাসন এনিয়ে কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় সর্বশেষ এমপি জাফর আলম মহোদয়ের উপস্থিতিতে গত বুধবার মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিষয়টি উত্থাপন করেন তিনি। পরে এমপি মহোদয় বিস্তারিত অবগত হওয়ার পর আজকে (গতকাল) ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দদের নিয়ে জরুরী মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।
সমিতির চেয়ারম্যান ইসমাইল সিকদার বলেন, ‘মতবিনিময় সভায় এমপি জাফর আলম ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ প্রদানসহ তাদেরকে পুনর্বাসনে যথেষ্ট আন্তরিকতা দেখিয়েছেন। তাৎক্ষণিক এমপির ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনের জন্য নগদ ১০ লাখ টাকা প্রদানের ঘোষনা দেন। এই পুনর্বাসন প্রকল্পে আমাকে সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করতে এবং পুনর্বাসনের জন্য জায়গা দেখতে পেকুয়ার এসিল্যান্ড এবং উপজেলা প্রকৌশলীকেও দায়িত্ব দেন এমপি জাফর আলম।
এমপির ব্যক্তিগত সহকারী আমিন চৌধুরী জানান, পেকুয়া বাজারের ক্ষতিগ্রস্ত ভাসমান ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ প্রদানসহ তাদেরকে অন্যত্র পুনর্বাসনের জন্য এমপি মহোদয় তাৎক্ষণিকভাবে এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যাতে পেকুয়া বাজারে সরকারীভাবে তিন তলা বিশিষ্ট বাজার শেড নির্মাণকাজ শুরু করা যায়। এজন্য প্রাথমিকভাবে এমপি মহোদয়ের পক্ষ থেকে নগদ ১০ লাখ টাকা প্রদানের ঘোষণা দেওয়া হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •