এম বশির উল্লাহ, মহেশখালী :

মহেশখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আবু জাফর ছিদ্দিকীর বড় ছেলে বহুল আলোচিত রুবেল হত্যা মামলার এজাহার নামীয় ১০ আসামীকে অবশেষে কারাগারে প্রেরন করেছে বিজ্ঞ আদালত। মহেশখালীর আলোচিত এই হত্যাকান্ডের ৬মাস অতিবাহিত হলেও কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

বিগত ২০২০ সালের ২৪ জুন বড় মহেশখালীর জাগিরাঘোনা এলাকার নিজ বাড়িতে সন্ত্রাসীরা মুক্তিযোদ্ধার পুত্র মনোয়ার কায়সার ছিদ্দিকী রুবেলকে নিজ বাড়িতে নির্মম ভাবে পিটিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

এদিকে সকল আসামী মামলা দায়ের হওয়ার পর থেকে পলাতক থেকে ১০ জন আসামী গোপনে হাইকোটে থেকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। চলিত বছরের ১৮ জানুয়ারী ছিলো আগাম জামিনের শেষ দিন ওই দিন মহেশখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: আব্বাস উদ্দিনের আদালত উক্ত আসামীদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরন করেন। কারাগারে প্রেরন কৃত আসামীরা হলেন, জাহাঙ্গীর আলম, শাহ আলম, আবু বক্কর, আনোয়ার পাশা মনু,রাশেদ প্রকাশ রাশিক্কে, নুরুল হাসেম, আব্দু ছুবর, কেফায়াত উল্লাহ , কামাল পাশা বেট্টা ও বেবি আক্তার তারা সকলে বড় মহেশখালীর বাসিন্দা। এখন ও পলাতক রয়েছে মামলার ১ নং আসামী সিরাজ, ২নং মো: আলম, ৩ নং নাছির, ১৫ নং বকসু মিয়া।

এদিকে পুত্র হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে গত ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ সালে অসুস্থ হয়ে কক্সবাজারের একটি হাসপাতালে মারা যান নিহত রুবেলের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর ছিদ্দিকী।

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুন রুবেল হত্যাকান্ডের পর নিহতের ছোট ভাই কায়ছার ছিদ্দিকী সোহেল বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় মামলা দায়ের করেছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •