ইমাম খাইর, সিবিএন:
রামুর খুনিয়াপালং ইউপিস্থ ধেচুয়াপালং এলাকা থেকে ১৯,৭০০ ইয়াবাসহ মোঃ রফিক আলম (৩৮) নামের রোহিঙ্গা মাদক কারবারী আটক করেছে র‌্যাব।
বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকালে তাকে আটক করা হয়েছে।
মোঃ রফিক আলম বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প, ক্যাম্প নং- ১৭, ব্লক-৮ ইই, এর মৃত আশু আলীর ছেলে।
শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে এ সংবাদ নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।
তার দেয়া তথ্য মতে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক কারবারী কক্সবাজার জেলার রামু থানাধীন খুনিয়াপালং ইউপিস্থ দেচুয়াপালং নতুন বাজার সংলগ্ন আব্দুল গণি চেয়ারম্যান এর সড়কের মাথায় পাঁকা রাস্তার উপর মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে।
উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি চৌকশ আভিযানিক দল পৌঁছালে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারীরা পালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে মোঃ রফিক আলম (৩৮)কে আটক করা হয়েছে। এ সময় আরেকজন পালিয়ে যায়।
পালানোর কারণ জিজ্ঞাসা করলে সে জানায়, তার নিকট মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট আছে। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে তার সাথে থাকা ব্যাগ তল্লাশী করে সর্বমোট ১৯,৭০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গা রফিক স্বীকার করে যে, পলাতক আসামীর সহযোগীতায় সে দীর্ঘদিন যাবৎ টেকনাফের সীমান্তবর্তী এলাকা হতে ইয়াবা সংগ্রহ করে কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্রয় করে আসছে।
পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে তাকে রামু থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। পলাতক আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানান আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •