রাজু দাশ, চকরিয়া:
কক্সবাজারের চকরিয়ায় দুই প্রবাসীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনার তিনদিন পার হলেও মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনার পর থেকেই স্থানীয়দের মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

গত রবিবার রাতে দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের খোজাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ডাকাত দলের সদস্যরা বাড়ির সদস্যদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা, সাড়ে ১৬ ভরি স্বর্ণালংকার, ৩টি মোবাইল সেট ও অন্যান্য মালামালসহ অন্তত ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নেয়।

এ ঘটনায় বাড়িতে থাকা দুই প্রবাসীর ভাই ও স্থানীয় আব্দুল মজিদের ছেলে নাসির উদ্দিন বাদি হয়ে গত সোমবার চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বাদি নাসির উদ্দিন বলেন, রবিবার রাতে বাড়ির দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত আড়াইটার দিকে ১৪-১৫ জনের সশস্ত্র মুখোশ পরিহিত ডাকাতদল বাড়ির দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে রশি দিয়ে বেঁধে বেদড়ক পেটাতে থাকে। পরে ডাকাত দলের সদস্যরা বাড়ির আলমিরা ভেঙে নগদ ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা, সাড়ে ১৬ ভরি স্বর্ণালংকার, ৩টি মোবাইল সেট ও অন্যান্য মালামালসহ অন্তত ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় সশস্ত্র ডাকাত দলের বেদড়ক পিটুনীতে প্রবাসী পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য কমবেশি আহত হয়। এ দূর্ধষ ডাকাতির ঘটনায় গতকাল সোমবার চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যোবায়ে বলেন, ডাকাতি হওয়া বাড়িতে (চকরিয়া সার্কেল) তফিকুল আলম সহ পরিদর্শন করেছি। ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের শনাক্তে চেষ্টা চলছে। এবং মালামাল উদ্ধারে অভিযান চলছে বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •