অনলাইন ডেস্ক : মৃত ব্যক্তিকে দাফনের জন্য স্থানীয়রা কবর খুঁড়ছিলেন। এসময় কবরের মাটির দেয়ালে আরবি হরফের ছাপ দেখতে পান। খবর ছড়িয়ে পড়লে তা দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমায়, যা সামলাতে রীতিমতো পুলিশ মোতায়েন করতে হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার এমন ঘটনা ঘটে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সদরের পশ্চিম পানিমাছকুটি গ্রামে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদুর রহমান।

স্থানীয়রা জানান, পানিমাছকুটির মৃত জব্বার মুন্সির ছেলে ইসরাঈল হোসেন গতকাল বুধবার রাতে ঢাকায় মারা যান। জানাজা শেষে তার মরদেহ নিজ বাড়ির পাশের কবরস্থানে দাফনের ব্যবস্থা করা হয়। আজ সকালে কবর খোঁড়া শুরু হলে মাটির দেয়ালে আরবি হরফের ছাপ দেখতে পান স্থানীয় এক মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। বিষয়টি কবর খোঁড়ার কাজে নিয়জিত অন্যদের জানালে তা মুখে মুখে পুরো এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

কবরের সেই আরবি হরফ দেখতে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে দলে দলে মানুষ আসতে থাকেন। এতে উৎসুক মানুষের ঢল নামলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দেয়া হয়, কবরস্থান এলাকায় মোতায়েন করা হয় পুলিশ।

জানতে চাইলে মৃত ইসরাঈলের ভাতিজা আবু বকর জানান, কবরের মাটি যতই খোঁড়া হচ্ছে, আরবি হরফের ছাপ ততই স্পষ্ট হচ্ছিল। চারপাশ দিয়ে বেশি খোঁড়ায় কবরের আকার বড় হলেও একই চিত্র দেখা যায়। এক পর্যায়ে বিষয়টি স্থানীয় আলেমদের জানানো হয়।

আলেমরা দেখে জানান, কবরের এক পাশে বিসমিল্লাহ, ইয়া ও শিন হরফের ছাপ দেখা যায়। অন্য পাশে দেখা যায় মিম, হা ও মিম হরফের ছাপ। এরপর বিষয়টি আরো দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে, জানান আবু বকর।

এ ঘটনায় উৎসুক জনতার ভিড় সামালতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান ইউএনও তৌহিদুর রহমান। ওসি রাজীব কুমার রায় বলেন, দাফন শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত পুলিশ ছিল সেখানে।

-২৪লাইভ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •